বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮
সংবাদ শিরোনাম

অনাদি, প্লুটো ও মিঠুন চাকমার স্মরণে নান্যাচরে সংহতি সমাবেশ

নান্যাচর(রাঙামাটি) : ‌‌“সেনাদের লেলিয়ে দেয়া মুখোশ বাহিনী সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান” এই শ্লোগানে শহীদ অনাদি রঞ্জন, প্লুটো ও মিঠুন চাকমার স্মরণে রাঙামাটির নান্যাচরে সংহতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ বুধবার (১৭ জানুয়ারি ২০১৮) দুপুর ১২টায় নব্য মুখোশ বাহিনী প্রতিরোধ কমিটির ব্যানারে নান্যাচর উপজেলার খুল্যাং পাড়ায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে পিসিপি’র নান্যাচর থানা শাখার সভাপতি জয়ন্ত চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ইউপিডিএফ-এর নান্যাচর উপজেলা ইউনিটের প্রধান সংগঠক অটল চাকমা ও পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিলাস চাকমা প্রমুখ।

সভা শুরুতে সকল শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

সভায় বক্তারা বলেন, নব্য মুখোশ বাহিনীর সন্ত্রাসীরা সেনাবাহিনীর গোলাম হিসেবে কাজ করে চলেছে। যতদিন সেনাবাহিনীর কাজ করবে ততদিন পর্যন্ত তাদের অস্তিস্ত থাকবে মাত্র। নব্বই দশকে সৃষ্ট মুখোশ বাহিনীর মতো নব্য মুখোশরাও গণপ্রতিরোধের মুখে নিশ্চিহ্ন হয়ে যেতে বাধ্য। যখনই জনগণ রুখে দাঁড়াবে তখন তাদের পতন রোধ করার আর কেউ থাকবে না। এটা সময়ের ব্যাপার মাত্র।

বক্তারা সেনাবাহিনীর সৃষ্ট নব্য মুখোশ বাহিনীর সন্ত্রাসী কর্মিকাণ্ডসহ সকল অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।

সভা থেকে সেনাবাহিনী কর্তৃক ইউপিডিএফ’র বান্দরবান জেলা ইউনিটের প্রধান সংগঠক ছোটন কান্তি তঞ্চঙ্গ্যাকে গ্রেফতারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বক্তারা। তারা অবিলম্বে তাঁর নিঃশর্ত মুক্তির দাবি করেন।

এদিকে আজকের সমাবেশ ভণ্ডুল করার লক্ষ্যে সেনাবাহিনী ও মুখোশরা উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিয়ে লোকজনকে বাধাদানসহ নানা তৎপরতা চালিয়েছে।

এছাড়া উপজেলার রামহরি পাড়ায়ও সংহতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুপুর ১টায় অনুষ্ঠিত সংহতি সমাবেশে রণিকা চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বৃহত্তর পাবর্ত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) রাঙামাটি জেলা শাখার সভাপতি কুনেন্টু চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের রাঙামাটি জেলার সাধারণ সম্পাদক দয়াসোনা চাকমা, পাবর্ত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘের সাধারন সম্পাদক কাজলী ত্রিপুরা, ঘিলাছড়ি ইউপি’র ৭ নং ওয়াডের্র মেম্বার গোজেন্দ্র চাকমা এবং ইউপিডিএফের সংগঠক বিদ্যাময় চাকমা প্রমুখ।

————
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *