কাউখালীতে ২য় শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণকারীর শাস্তির দাবিতে খাগড়াছড়িতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

0
1

সিএইচটিনিউজ.কম
OLYMPUS DIGITAL CAMERAখাগড়াছড়ি: রাঙ্গামাটির কাউখালীতে ২য় শ্রেণীতে পড়ুয়া পাহাড়ি স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণকারী মো: আইয়ুব আলীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আজ শনিবার(১৭ জানুয়ারি) বিক্ষোভ মিছিল করেছে খাগড়াছড়ি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা। মিছিলটি সকাল ১১টায় টেকনিক্যাল স্কুল গেইট থেকে শুরু হয়ে পুলিশের বাধার মুখে চেঙ্গী স্কোয়ারে সমাবেশ করে উপজেলা মাঠে এসে শেষ হয়।

সমাবেশে টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণীর ছাত্র সোহেল চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন দশম শ্রেণীর ছাত্র রাজু চাকমা ও একাদশ শ্রেণীর ছাত্র দেবেজ চাকমা। এছাড়া সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক এলটন চাকমা।

বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে নারী ধর্ষণের ঘটনা ঘটনা নতুন নয়। বাঙালি সেটলার কর্তৃক প্রতিনিয়ত এ ধরনের ঘটনা সংঘটিত হচ্ছে। এমনকি রাষ্ট্রীয় বাহিনীর সদস্য দ্বারাও এ ধরনের ঘটনা ঘটছে। সরকার জুম্ম জনগণকে চিরতরে ধ্বংস করে দেয়ার জন্য সেনা-সেটলারদের লেলিয়ে দিয়ে হামলা, ধর্ষণসহ নানা ধরনের ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। এ যাবত পার্বত্য চট্টগ্রামে বহু নারী ধর্ষণ, ধর্ষণের পর হত্যার শিকার হয়েছেন। কিন্তু সরকার একটি ঘটনারও সুষ্ঠু বিচার করেনি। বরং অপরাধীদের উষ্কানি ও উৎসাহ দানের জন্য আইনের ফাঁক-ফোঁকড় তৈরি করছে। ফলে ধর্ষণকারীরা বারবার এ ধরনের নৃশংস ঘটনা ঘটাচ্ছে।

সমাবেশ থেকে বক্তারা ধর্ষক আইয়ুব আলীর ফাঁসির দাবি জানান।

এদিকে, একই দাবিতে সম্মিলিত ছাত্র সমাজের ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ফেনী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ছাত্র অভি চাকমা, সরকারি কলেজের ছাত্র সুভাষ চাকমা, উক্যচিং মার্মা, কনক চাকমা।

বাংলাদেশ মারমা স্টুডেন্টস কাউন্সিল(বিএমএসসি)ও একই দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

উল্লেখ্য, গত ১৪ জানুয়ারি ২০১৫ রাঙ্গামাটির কাউখালী উপজেলায় কাশখালী এলাকায় স্কুল থেকে ফেরার পথে কাশখালী গ্রামের মো: আইয়ূব আলী ওই শিশু ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। শিশুটি বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
———–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.