খাগড়াছড়িতে উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের সম্মেলন : নতুন সংগঠন "নির্বাচিত জুম্ম জনপ্রতিনিধি সংসদ" গঠিত ও ৩ দফা ঘোষণা গৃহিত

0
1

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
পার্বত্য চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের এক সম্মেলন খাগড়াছড়িতে অনুষ্ঠিত হয়েছেসম্মেলন শেষে নির্বাচিত জুম্ম জনপ্রতিনিধি সংসদনামে একটি নতুন সংগঠনের ঘোষণা দেয়া হয়েছ এবং পানছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান সর্বোক্তম চাকমাকে সভাপতি ও অমর জীবন চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে সংগঠনটির ১৭ সদস্য বিশিষ্ট কার্যকরী কমিটি গঠন করা হয়েছেএছাড়া উপস্থিত নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা জনসংহতি সমিতির সন্তু লারমা গ্রুপকে জাতীয় স্বার্থ পরিপন্থী ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত পরিহার করে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এর সাথে ঐক্য ও সমঝোতা গড়ে তোলার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন

গতকাল ২৩ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১১টায় টায় খাগড়াছড়ি জেলা সদরের পেরাছড়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এ সম্মেলনের আয়োজন করেপার্বত্য চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলা থেকে সাড়ে চার শত নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি এতে অংশ নেন

দুপর্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে প্রথম পর্বে নির্বাচিত জনপ্রনিধিদের সংবর্ধনা দেয়া হয়ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর কেন্দ্রীয় সদস্য ধ্রুব জ্যোতি চাকমার সভাপতিত্বে সম্বর্ধনা সভায় জনপ্রনিধিদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন পানছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান সর্বোত্তম চাকমাস্বাগত বক্তব্য রাখেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি নতুন কুমার চাকমাঅনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট এর খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের প্রধান সংগঠক প্রদীপন খীসা

এরপর দুপুর ১২টায় অনুষ্ঠিত সম্মেলন পর্বে সভাপতিত্ব করেন পানছড়ি উপজেলার লোগাং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সমর বিকাশ চাকমাঅতিথি বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর সাধারণ সম্পাদক রবি শংকর চাকমাতিনি বলেন, শাসকগোষ্ঠী সব সময় চায় পাহাড়িদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করে পার্বত্য চট্টগ্রামে উগ্রজাতীয়তাবাদী আধিপত্য বজায় রাখাতারা চায় পাহাড়িরা আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টির মতো দলগগুলোর রাজনীতির সাথে যুক্ত হোক, যাতে তাদের ওপর অন্যায় অবিচার করা হলে তার প্রতিবাদ করার মতো কেউ না থাকে, অথবা প্রতিবাদ করলেও যাতে তা জোড়ালো না হয়তিনি অধিকার আদায়ের জন্য বৃহত্তর ঐক্য প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানান


এ ছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন পানছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান সর্বোত্তম চাকমা
, মহালছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান সোনারতন চাকমা, নান্যাচর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রীতিময় চাকমা, বাঘাইছড়ি উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাগরিকা চাকমা, নান্যাচর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কুমেন্দু বিকাশ চাকমা, রাঙামাটির ঘিলাছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অমর জীবন চাকমা, সাবেক্ষং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সুপন চাকমা, মারিশ্যা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তন্টুমনি চাকমা, মগবান ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অরুণ কান্তি চাকমা, খাগড়াছড়ির মাইসছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শান্তশীল চাকমা, সিন্দুকছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সুইনুপ্রুমারমা ও পেরাছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সঞ্জীব ত্রিপুরাঅনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব চাকমা এবং যৌথভাবে অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন প্রদীপন খীসা ও চেঙ্গী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অনিল চাকমা

সম্মেলনে উপস্থিত জনপ্রতিনিধিরা বলেন, জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধি হিসেবে আমরা সুখে দুঃখে তাদের পাশে থাকার অঙ্গীকার ব্যক্ত করছিআমরা সমতা ও ন্যায়পরতার নীতিতে পাহাড়ি বাঙালি উভয় সম্প্রদায়ের উন্নতি ও সমৃদ্ধির জন্য কাজ করার আপ্রাণ চেষ্টা অব্যাহত রাখবোতবে এটা আমরা নির্দ্বিধায় বলতে চাই, কোন নিপীড়িত জাতির ন্যায়সঙ্গত অধিকারের জন্য কাজ করা হলে তা সমতা ও ন্যায়পরতার নীতিকে কোন ভাবে লঙ্ঘন করে না

সম্মেলনে উপস্থিত জনপ্রতিনিধিদের সম্মতিক্রমে নির্বাচিত জুম্ম জনপ্রতিনিধি সংসদ (Elected Jumma Public Representatives’ Forum) নামে একটি নতুন সংগঠন গঠিত হয়১৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অন্যান্যরা হলেন সহসভাপতি বিশ্ব কল্যাণ চাকমা, চেয়ারম্যান, কবাখালি ইউপি, দীঘিনালা; সহসভাপতি কাকলী খীসা, মহালছড়ি উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান; সহসভাপতি অরুণ চাকমা, চেয়ারম্যান, মগবান ইউপি, রাঙামাটি; সহসাধারণ সম্পাদক (৪ জন) থুই মং মারমা, চেয়ারম্যান, খাঘড়া ইউপি, কাউখালি; জ্ঞান রঞ্জন ত্রিপুরা, চেয়ারম্যান, গোলাবাড়ি ইউপি, খাগড়াছড়ি; সুপন চাকমা, চেয়ারম্যান, সাব্যেং ইউপি, নান্যাচর; তারসি চাকমা, চেয়ারম্যান, বঙ্গলতলী ইউপি, বাঘাইছড়ি; অর্থ সম্পাদক কান্তি লাল দেওয়ান, চেয়ারম্যান, ভাইবোনছড়া ইউপি, খাগড়াছড়ি; তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সমর বিকাশ চাকমা, চেয়ারম্যান, লোগাং ইউপি, পানছড়ি; সদস্য (৬ জন) দীপময় চাকমা, চেয়ারম্যান, ১ নং ঘিলাছড়ি ইউপি, রাজস্থলী; জ্যোস্না রাণী চাকমা, সদস্য, ৩৬ নং সাজেক ইউপি; তন্টু মনি খীসা, চেয়ারম্যান, মারিশ্যা ইউপি; শান্তশীল চাকমা, চেয়ারম্যান, মাইসছড়ি ইউপি; শ্যামরতন চাকমা, চেয়ারম্যান, আইমাছড়ি ইউপি ও উশ্যৈই প্রুমারমা, চেয়ারম্যান, হাফছড়ি ইউপি


সংগঠন পরিচালনার সুবিধার্থে একটি খসড়া পরিচালনার নীতি ও নিয়মবিধি সম্মেলনে পাস ও ৩ দফা ঘোষণা গৃহিত হয়
ঘোষণায় জনসংহতি সমিতির সন্তু লারমা গ্রুপের উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে: গত ১৩ বছরের গৃহযুদ্ধ-তুল্য ভ্রাতৃঘাতি সংঘাতে বহু রক্ত ক্ষয় হয়েছেদুই পার্টি ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) ও জনসংহতি সমিতির বহু সম্ভাবনাময় নেতাকর্মীর অকাল মৃত্যু হয়েছে, খালি হয়েছে বহু মায়ের কোল, বৈধব্য বরণ করতে হয়েছে বহু নারীকে, আর অনাথ হয়েছে বহু শিশুএই অহেতুক রক্তক্ষয়ী হানাহানিতে জুম্ম জাতির অনেক বড় ক্ষতি হয়েছেবোধশক্তিসম্পন্ন যে কেউ জানে চলমান এই ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি জনগণের স্বার্থের পরিপন্থীআমরা আর বৃথা রক্ত ক্ষয় চাই না; আমরা চাই অবিলম্বে ভাইয়ে ভাইয়ে হানাহানি বন্ধ হোকআশার কথা এই যে, ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) -এর সাথে জনসংহতি সমিতির একাংশ এম এন লারমা গ্রুপের সংঘাত বন্ধ হয়েছে এবং জনসংহতি সমিতির অপর অংশ সন্তু গ্রুপের সাথে আলোচনার মাধ্যমে ঐক্য ও সমঝোতা প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানানতাই এই পরিপ্রেক্ষিতে এই সম্মেলনে আমরা —

ক. জনসংহতি সমিতির সন্তু লারমা গ্রপকে জাতীয় স্বার্থ পরিপন্থী ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত পরিহার করে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এর দেয়া ঐক্য ও সমঝোতা প্রস্তাবে সম্মত হওয়ার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি

খ. ইউপিডিএফ ও জনসংহতি সমিতির এম এন লারমা গ্রুপের সাথে ন্যুনতম কর্মসূচীর ভিত্তিতে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট গড়ে তুলে জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন শুরু করার আহ্বান জানাচ্ছি

ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) ও জনসংহতি সমিতি (এম এন লারমা) এর উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে:

সংঘাত পরিহার করায় আমরা ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) ও জনসংহতি সমিতিকে (এম এন লারমা) অভিনন্দন ও সাধুবাদ জানাচ্ছিআমরা উভয় পার্টিকে জাতীয় স্বার্থে এই সমঝোতা বজায় রাখা তথা ঐক্যকে আরো বেশী সুদৃঢ় করার আহ্বান জানাচ্ছিঅধিকার আদায়ের লক্ষ্যে ন্যুনতম কর্মসূচীর ভিত্তিতে জেএসএস (সন্তু লারমা) এর সাথে ঐক্য ফ্রন্ট প্রতিষ্ঠায় রাজী হওয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি

সর্বশেষ সরকারের উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে: পার্বত্য চট্টগ্রামে ১১টি পাহাড়ি জাতি স্মরণাতীত কাল থেকে স্বকীয় জাতিসত্তা, সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য নিয়ে বসবাস করে আসছেতাদের বিরুদ্ধে অতীতে বহু অন্যায় অবিচার হয়েছে, নির্যাতনের স্টিম রোলার চালানো হয়েছেএখনো তাদেরকে ভূমি থেকে উচ্ছেদ করার নানান ষড়যন্ত্র চলছেভূমি বেদখলের উদ্দেশ্যে দাঙ্গা বাঁধানো প্রায় নিয়মে পরিণত হয়েছেপ্রায় ১৪ বছর আগে ১৯৯৭ সালে সম্পাদিত পার্বত্য চুক্তির মাধ্যমে সশস্ত্র আন্দোলন বন্ধ হওয়ার পরও পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে আজও সেনা প্রত্যাহার করা হয়নিপার্বত্য এলাকা এখনো সেনা ছাউনীতে পরিপূর্ণআওয়ামী লীগ চুক্তি স্বার করেও তা বাস্তবায়ন করছে নাউপরন্তু জাতীয় সংসদে পঞ্চদশ সংশোধনী পাশ করে সংখ্যালঘু জাতির জনগণের ওপর বাঙালি জাতীয়তা চাপিয়ে দিয়েছেএর প্রতিবাদে পুরো পার্বত্য চট্টগ্রাম মুখর হয়ে উঠেছে

ছোট হোক বড় হোক, প্রত্যেক জাতির নিজ পরিচয়, সংস্কৃতি, ভাষা ও ঐতিহ্য নিয়ে বেঁচে থাকার অধিকার রয়েছেবাংলাদেশে বাঙালি ছাড়াও আরো অনেক ভিন্ন ভাষাভাষী সংখ্যালঘু জাতি বাস করেনএকমাত্র সমঅধিকার ও সমমর্যাদার ভিত্তিতে ছোট বড় এই সকল জাতির মধ্যে প্রকৃত ঐক্য ও সংহতি গড়ে উঠতে পারেসংখ্যাগুরু জাতি অন্য সংখ্যালঘু জাতিগুলোর ওপর উগ্রজাতীয়তাবাদ চাপিয়ে দিলে তা হবে অগণতান্ত্রিক এবং সে কারণে অগ্রহণযোগ্যতাই আমরা এই মহতি সম্মেলনে সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই:

ক. পার্বত্য চট্টগ্রামে স্বায়ত্তশাসন দিন; সেনাবাহিনী প্রত্যাহার করুন এবং বহিরাগতদেরকে সমতল জেলায় পুনর্বাসন করুন

খ. সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনী বাতিল পূর্বক পার্বত্য চট্টগ্রামসহ দেশের সংখ্যালঘু জাতিগুলোর অস্তিত্ব ও অধিকারের স্বীকৃতি দিন

গ. পার্বত্য চট্টগ্রামে আবহমানকাল কাল থেকে চলে আসা প্রথাগত ভূমি আইনের স্বীকৃতি দিন এবং বহিরাগতদের দ্বারা বেদখলকৃত জমি স্ব স্ব মালিকদের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করুন

ঘ. যে সব ভারত প্রত্যাগত জুম্ম শরণাথীদেরকে এখনো চুক্তি মোতাবেক পুনর্বাসন করা হয়নি, তাদেরকে অবিলম্বে পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করুন; আভ্যন্তরীণ শরণার্থীদের পুনর্বাসনের উদ্যোগ নিন

ঙ. আদিবাসী বিষয়ক জাতিসংঘ ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষর করুন


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.