জেনি মার্কস-এর ১৩৫তম মৃত্যুবাষির্কী স্মরণে

খাগড়াছড়িতে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের আলোচনা সভা

0
0

hwf-programখাগড়াছড়ি: কার্ল মার্কসের সহধর্মিনী জেনি মার্কস-এর ১৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী স্মরণে ‘সামাজিক অবক্ষয় ও অপসংস্কৃতি রোধে নারী সমাজের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভা করেছে হিল উইমেন্স ফেডারেশন খাগড়াছড়ি জেলা শাখা।

শুক্রবার (২ ডিসেম্বর ২০১৬) সকাল ১১টায় খাগড়াছড়ি সদর এলাকায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি দ্বিতীয়া চাকমার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক চৈতালি চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ইউপিডিএফ সংগঠক মিঠুন চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘের কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক রুপা চাকমা ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি নিরূপা চাকমা প্রমুখ।

সভায় মিঠুন চাকমা বলেন, সমাজে যেমন নারীদের অবদান অস্বীকার করা যায়না, ঠিক তেমনি পরিবারে ও নারীদের অবদান কম নয়। নারী সমাজকে সামাজিক অবক্ষয় রোধে কাজ করতে হবে। জেনি মার্কসের ৪টি সন্তান অভাব-অনটন ও অসুখে মারা যাওয়ার পরও তিনি ভেঙ্গে পড়েননি। এইন দৃষ্টান্ত আমাদের নারী সমাজকেও রাখতে হবে।

রুপা চাকমা বলেন, জেনি মার্কস গোটা নারী সমাজের একটি আইকন। তার থেকে গোটা নারী সমাজকে শিক্ষা নিতে হবে। জেনি মার্কস এর অনেক প্রতিভা ছিল। তিনি সকল প্রকার দুঃখ দুর্দশার মধ্যেও কার্ল মার্কসের পাশে থেকে তাকে আজীবন অনুপ্রেরণা দিয়েছিলেন।

নিরূপা চাকমা বলেন, অনেকে হয়তো বলবেন জেনি মার্কস ১৩৫ বছর আগে মারা গেছেন তাকে আমরা কেন স্মরণ করব? কিন্তু জেনী মার্কসের গুরুত্ব আছে বলেই আজ হিল উইমেন্স ফেডারেশন আলোচনা সভা করছে। শুধু জেনী মার্কস কেন, কোন নারী যদি সমাজ পরিবর্তনের কাজ করেন আমরা তাকে স্মরণ করবো, স্যালুট জানাবো। একটা জাতি টিকে থাকার জন্য নারীদের ভূমিকা অনেক। কল্পনা চাকমা পাহাড়ি নারী সমাজ ও গোটা জাতির অধিকারে জন্য আন্দোলন করতে গিয়ে অপহরণ হয়েছেন কুখ্যাত লেঃ ফেরদৌস ও তার দোসরদের দ্বারা। তিনি নারী সমাজকে আরো বেশি সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি আরো বলেন, শাসকগোষ্ঠী আমাদের ন্যায়সঙ্গত আন্দোলকে দমনের জন্য বিভিন্ন প্রচেষ্টা চালাবে, আমাদেরকে কঠোরভাবে তা মোকাবেলা করতে হবে।

দ্বিতীয়া চাকমা বলেন, জেনী মার্কস সম্ভ্রান্ত পরিবারে কন্যা হয়েও দুঃখকে মেনে নিয়ে ও সকল ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে কাল মার্কসকে সহযোগীতা করেছেন। আমাদের নারী সমাজকেও এই দৃষ্টান্ত রাখতে হবে।
—————-

সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.