গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার কাউন্সিল সম্পন্ন

0
0

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
Matiranga Dyf council, 30 May 2014“সকল পিছুটান ঝেড়ে ফেলে যুব সমাজ অধিকার আদায়ে হও আগুন” এই শ্লোগানে গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার ৩য় কাউন্সিল আজ ৩০ মে শুক্রবার সকালে বাইল্যাছড়ি সেন্টপল নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে সম্পন্ন হয়েছে।

সেনাবাহিনী বাধা দিয়ে কাউন্সিল বানচাল করে দেয়ার চেষ্টা চালিয়েছে অভিযোগ করে সংবাদ মাধ্যমে প্রদত্ত সংগঠনের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কাউন্সিল অধিবেশন শুরু করার পূর্বে মাটিরাঙ্গা জোন হতে একদল সেনা সদস্য কাউন্সিল অধিবেশন স্থলে উপস্থিত হয়ে বাধা দেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় তারা হলের ভিতর টাঙানো ব্যানার খুলে নিয়ে যায় এবং ফাইলপত্র কেড়ে নেয়। এছাড়া সেনারা উপস্থিত নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের হল থেকে বের করে মাঠে নিয়ে গিয়ে ছবি তুলে ও নাম জিজ্ঞাসা করে আতঙ্ক সৃষ্টির চেষ্টা করে। এতে নেতা-কর্মীরা তীব্র প্রতিবাদ জানালে পরে সেনারা কাউন্সিল অধিবেশনের অনুমতি দিতে বাধ্য হয় এবং সেখান থেকে চলে যায়।

এরপর সকাল সাড়ে ১১টায় শহীদদের উদ্দেশ্যে ১ মিনিট নিরবতা পালনের মধ্য দিয়ে কাউন্সিল অধিবেশন শুরু হয়। জনি ত্রিপুরার সভপতিত্বে ও সুদীপ্ত ত্রিপুরার সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক জিকো ত্রিপুরা, হিল উইমেন্স ফেডারেশন এর জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক রিনা চাকমা  এবং পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের মাটিরাঙ্গা উপজেলা অর্থ সম্পাদক অমল ত্রিপুরা প্রমুখ।

যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ত্রিপুরা ক্ষোভ প্রকাশ বলেন, সরকার সর্বক্ষেত্রে আজ জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করে চলেছে। সেনাবাহিনী জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত না করে পার্বত্য চট্টগ্রামের আন্দোলনকারীদের উপর নির্যাতন নিপীড়ন করে চলেছে।

তিনি সকল পিছুটান ঝেড়ে ফেলে নিপীড়ন-নির্যাতনের বিরুদ্ধে ও অধিকার আদায়ের সংগ্রামে আগুয়ান হওয়ার জন্য যুব সমাজের প্রতি আহ্বান জানান।

হিল উইমেন্স ফেডারেশন এর জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক রিনা চাকমা বলেন, ধর্ষণকারীদের উপযুক্ত শাস্তি না হওয়ায় পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারা দেশে নারীদের উপর যৌন সহিংসতা ও ধর্ষণ  বেড়ে চলেছে। তাই বসে না থেকে ছাত্র-যুব-নারী সমাজকে জেগে উঠতে হবে।

পিসিপি’র মাটিরাঙ্গা থানা শাখার অর্থ সম্পাদক অমল ত্রিপুরা বলেন, ছাত্র-যুব-জনতা তথা পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণ গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের দিকে তাকিয়ে রয়েছে। তাই যুব ফোরামকে আগামী দিনে যে কোন কর্মসূচীতে আগুয়ান বাহিনীর ভূমিকা পালন করতে হবে।

শেষে শান্তিময় চাকমাকে সভাপতি, রিপন ত্রিপুরাকে সাধারণ সম্পাদক ও উৎপল ত্রিপুরাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ১৭ সদস্যের নতুন কার্যকরী কমিটি গঠন করা হয়।
—————-

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.