চট্টগ্রামের বন্দর ইপিজেডে পাহাড়ি-বাঙালি শ্রমিকের দাঙ্গায় ইউপিডিএফের উদ্বেগ

0
0
ডেস্ক রিপোর্ট, সিএইচটিনিউজ.কম
 
ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) চট্টগ্রাম মহানগর ইউনিটের সংগঠক বকুল চাকমা ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম বন্দর থানা শাখার সভাপতি বিজয় চাকমা আজ রবিবার ২৫ আগস্ট এক যুক্ত বিবৃতিতে চট্টগ্রামের ইপিজেডে চীনা মালিকানাধীন বন্ড সু ফ্যাক্টরীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পাহাড়ি-বাঙালি শ্রমিকদের মধ্যে মারামারি ও পরে প্রকাশ্য দাঙ্গার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।বিবৃতিতে তারা বলেন, যেখানে জাতি ধর্ম বর্ণ লিঙ্গ নির্বিশেষে সব শ্রমিকের মধ্যে সংহতি জোরদার হওয়া দরকার, নিজেদের অধিকারের জন্য ঐক্যবদ্ধভাবে সংগ্রাম জারি থাকা দরকার, সেখানে পাহাড়ি ও বাঙালি শ্রমিকদের নিজেদের মধ্যে সংঘাত অত্যন্ত দুঃখজনক, অনভিপ্রেত ও সামগ্রিক শ্রমিক স্বার্থের জন্য হানিকর।

যারা এই ধরনের সংঘাতের উস্কানি দেয় তারা পাহাড়ি-বাঙালি কারোর বন্ধু নয় মন্তব্য করে নেতৃদ্বয় বলেন, ইপিজেডে কর্মরত সকল শ্রমিককে এদের ব্যাপারে অত্যন্ত সজাগ থাকতে হবে এবং সবার উপরে শ্রমিকদের সামগ্রিক স্বার্থকে প্রাধান্য দিতে হবে।

নেতৃবৃন্দ ইপিজেডসহ চট্টগ্রামে কর্মরত পাহাড়িদের নিরাপত্তার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সরকারের প্রতি দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গতকাল শনিবার বন্ড সু ফ্যাক্টরীতে কোন এক তুচ্ছ বিষয় নিয়ে পাহাড়ি ও বাঙালি শ্রমিকদের মধ্যে মারামারি হয়। ফ্যাক্টরী কর্তৃপক্ষ দুই পক্ষকে ডেকে আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি মিটমাট করে দেয়। কিন্তু এরপরও মারামারির ঘটনা ঘটে এবং জনসংহতি সমিতির সন্তু লারমা গ্রুপের ১৫-২০ জন কর্মী ফ্যাক্টরীর গেটে অবস্থান নেয়। পরে সেখান থেকে ফেরার সময় বাঙালি শ্রমিকরা গণহারে পাহাড়িদের উপর অতর্কিতে হামলা চালায়। এতে বেশ কয়েক জন গুরুতর আহত হয় বলে জানা যায়। উক্ত ঘটনার রেশ ধরে আজ সকালেও উভয় পক্ষের মধ্যে বন্দরের ব্যারিস্টার কলেজ এলাকায় বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

—–

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.