জাতীয় বেঈমান-দালাল-প্রতিক্রিয়াশীলদের প্রতিহতের ঘোষণা তিন সংগঠনের

0
0

খাগড়াছড়ি : সেনা-প্রশাসনের সাথে আঁতাতকারী জাতীয় বেঈমান-দালাল-প্রতিক্রিয়াশীল ও খুন, গুম, অপহরণকারীদের প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়েছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি), গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম(ডিওয়াইএফ) ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ।

আজ সোমবার (২৩ এপ্রিল) সকাল ১১টায় ইউপিডিএফ সংগঠক সুনীল বিকাশ ত্রিপুরা(কাথাং)-কে গুলি করে হত্যার প্রতিবাদে দ্বিতীয় দিনের মতো খাগড়াছড়ি সদরের স্বনির্ভরে আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে তিন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এ ঘোষণা দেন।

সমাবেশের আগে ইউপিডিএফ-এর জেলা কার্যালয়ের সামনে একটি মিছিল চেঙ্গী উপজেলা পরিষদ এলাকার দিকে যেতে চাইলে নারাঙহিয়া রেড স্কোয়ারে পুলিশ ব্যারিকেড দিয়ে বাধা দেয়। এ সময় নেতা-কর্মীরা বিভিন্ন শ্লোগান দিয়ে এর প্রতিবাদ জানায়। পরে সেখান থেকে মিছিলটি পূনরায় স্বনির্ভরে এসে সমাবেশে মিলিত হয়।

পিসিপি খাগড়াছড়ি জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তপন চাকমার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অমল ত্রিপুরার সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক রতন স্মৃতি চাকমা ও হিল উইমেন্স ফেডারেশন খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি দ্বিতীয় চাকাম প্রমুখ।

বক্তারা আরো অভিযোগ করে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারাদেশে বিচারহীনতার সংস্কৃতি চলছে। অপরাধীদের উপযুক্ত বিচার না হওয়ায় প্রতিনিয়ত খুন-গুম-অপহরণসহ অন্যায় দমন-নিপীড়নের ঘটনা ঘটেই চলেছে। প্রশাসন অপরাধীদের গ্রেফতার ও শাস্তি না দিয়ে নিরীহ জনগণের উপর নির্যাতন চালাচ্ছে এবং মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে গ্রেফতার করছে। আজকে সকালেও আলুটিলা থেকে ছিনতাইয়ের মিথ্যা অভিযোগে দুই নিরীহ পাহাড়িকে পুলিশ আটক করেছে। অথচ তারা মিঠুন-অনাদি-অনল-সূর্য বিকাশ চাকমাসহ ইউপিডিএফ ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মী, সমর্থকদের হত্যা ও দুই নেত্রীকে অপহরণে সাথে জড়িত সংস্কার-নব্য মুখোশ সন্ত্রাসী পেলে, বর্মা, সুদর্শন, শক্তিমান গংদের গ্রেফতার করছে না। উপরন্তু জনগণের ন্যায্য আন্দোলনকে ধ্বংস করে দেয়ার ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে সন্ত্রাসীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে খুন, গুম, অপহরণের মতো অপকর্ম সংঘটিত করছে।

# নারাঙহিয়া রেডস্কোয়ার এলাকায় মিছিলকারীদের বাধা দিচ্ছে পুলিশ।

সমাবেশ থেকে বক্তারা জাতীয় বেঈমান-দালাল-প্রতিক্রিয়াশীল ও চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের সেনা-প্রশাসন সাথে দেখলে কিংবা যে কোন স্থানে দেখার সাথে সাথে প্রতিহত করার ঘোষণা দেন। তারা সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রুখে দাঁড়িয়ে প্রত্যেকটি এলাকার পাড়া-মহল্লায়, গ্রামে-গ্রামে প্রতিরোধের দুর্গ গড়ে তোলার জন্য জনগণের প্রতি আহ¦ান জানান।

বক্তারা, অবিলম্বে ইউপিডিএফ নেতা সুনীল বিকাশ ত্রিপুরাসহ এযাবৎ নেতা-কর্মী হত্যা ও খুন-গুম-অপহরণের সাথে জড়িত সেনা সৃষ্ট সন্ত্রাসী পেলে-বর্মা-জুলেয়্যা, সুদর্শন, শক্তিমান গংদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

এদিকে, সুনীল বিকাশ ত্রিপুরাকে হত্যার প্রতিবাদে খাগড়াছড়ির মানিকছড়িতেও তিন সংগঠনের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, গতকাল রবিবার সকালে পানছড়ি উপজেলার মরাটিলায় সেনা মদদপুষ্ট  জেএসএস সংস্কারপন্থী সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা ব্রাশ ফায়ার করে ইউপিডিএফ-এর গুইমারা-মাটিরাংগা উপজেলা সমন্বয়ক সুনীল বিকাশ ত্রিপুরা(কাথাং)-কে গুলি করে হত্যা করে।
——————-
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.