পার্বত্য চট্টগ্রামে ‘নব্য মুখোশ-বোরখা বাহিনী’ দিয়ে চাঁদাবাজি, অস্ত্র গুঁজে গ্রেফতার-প্রমোশন বাণিজ্যের উৎপাতের প্রতিবাদে

ঢাকায় পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের বিক্ষোভ

0
0

ঢাকা : অস্ত্রসহ ধৃত দাগী সন্ত্রাসী ‘তরু’কে ছেড়ে দেয়া,‘নব্য মুখোশ-বোরখা বাহিনী’ লেলিয়ে দিয়ে চাঁদাবাজি, অস্ত্র গুঁজে গ্রেফতার-প্রমোশন বাণিজ্যের উৎপাতের প্রতিবাদে গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর ২০১৭) ঢাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)।

বিকাল ৪ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইউপিডিএফ ঢাকা অঞ্চলের সংগঠক  মিল্টন চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরূপা চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের দপ্তর সম্পাদক রিপন চাকমা। এতে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন ফ্যাসিবাদ ও সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী জাতীয় কমিটির সদস্য রকিব পারভেজ।

পিসিপি’র কেন্দ্রীয় সদস্য রিপন চাকমার সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন পিসিপির সভাপতি বিনয়ন চাকমা।

বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণের ওপর অব্যাহতভাবে ষড়যন্ত্র চলে আসছে। সেনা কর্তৃক পাহাড়িদের মধ্যকার সমাজচ্যুত দলচ্যুত দর্বৃত্তদের দিয়ে ‘নব্য মুখোশবাহিনী’ সৃষ্টির পাঁয়তারা চলছে। চিহ্নিত দাগী সন্ত্রাসী ‘তরু’ চাকমাকে অস্ত্রসহ ধরেও উপরিস্থ কর্মকর্তার নির্দেশে সেনা প্রহরায় সন্ত্রাসী আস্তানায় পৌঁছে দেয়ার মাধ্যমে ষড়যন্ত্র স্পষ্ট হয়েছে।

বক্তারা দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, অতীতে পিসিপি, পিজিপি, এইচডব্লিউএফ এবং জনগণ সম্মিলিতভাবে  সেনা মদদপুষ্ট ‘মুখোশ বাহিনী’কে রুখে দিয়েছিল, তেমনি বর্তমান সময়েও ‘নব্য ‘মুখোশ বাহিনী’ সৃষ্টির ষড়যন্ত্র নসাৎ করে দিতে জনগণ আগের মত রুখে দাঁড়াবে।

ফ্যাসিবাদ ও সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী জাতীয় কমিটির নেতা রকিব পারভেজ বলেন, পাহাড়ে গেলে সহজে বুঝা যায় সমতল ও পাহাড়ের শাসন ব্যবস্থার পার্থক্য। সমতলে এক রকম, আর পাহাড়ে চলছে অন্য রকম শাসন। ফখরুদ্দীন-মঈনুদ্দীনদের জরুরি অবস্থার শাসনামলে বাংলাদেশে যে অবস্থা ছিল, সে রকম পরিস্থিতি পার্বত্য চট্টগ্রামে সব সময় বিরাজ করে।

তিনি সেনা কর্তৃক রমেল চাকমা হত্যার ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে সেনা বাধা ও হয়রানির কথা স্মরণ করে বলেন, সে সময় সেনা পোস্টে পোস্টে বাধার সম্মুখীন হতে হয়েছে। তিনি বলেন, রঙ বেরঙের ঠ্যাঙারে বাহিনী সৃষ্টি করে পাহাড়ি জনগণের প্রকৃত আন্দোলনের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে। এ ষড়যন্ত্র সফল হবে না। ন্যায্য অধিকার আদায়ে জনগণ দুর্বৃত্তদের পরাস্ত করে ঐক্যবদ্ধ হবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সমাবেশ শেষে প্রেসক্লাবে সামনে মিছিল বের করা হয়।

পিসিপি’র কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক রোনাল চাকমা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
————–

সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।

 


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.