ঢাকায় লোগাং গণহত্যার ২৪তম বার্ষিকী পালন করবে পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন গণসংগঠন

0
1
লোগাংসহ বিভিন্নস্থানে অনুষ্ঠিত হবে প্রতিবাদী সভা

ঢাকা : পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন গণতান্ত্রিক সংগঠন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ, হিল উইমেন্স ফেডারেশন ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম আগামী ১০ এপ্রিল বিকালে ঢাকার শাহবাগ জাদুঘরের সামনে লোমহর্ষক লোগাং গণহত্যার স্মরণে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও স্মরণসভার আয়োজন করবে। গণহত্যা দিবসে তিন সংগঠনের প্রতিপাদ্য শ্লোগান হচ্ছে ‘গণশত্রুদের বিরুদ্ধে পাহাড় ও সমতলের জনগণের সংগ্রামী মৈত্রী উর্দ্ধে তুলে ধরুন’। উক্ত কর্মসূচিতে পাহাড় ও সমতলের মৈত্রী ও সংহতি তুলে ধরতে সাধারণ জনগণ, বুদ্ধিজীবী, শিক্ষক-ছাত্রছাত্রী-সাংবাদিক, লেখকসহ সকল শ্রেণী পেশার জনগণকে স্বতস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়েছে তিন সংগঠন।

3 org leaflet on logang massacre day program১৯৯২ সালের ১০ এপ্রিল খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার লোগাং নামক এলাকায় লোগাঙ গণহত্যা সংঘটিত হয়। সেটলার যুবক কর্তৃক একজন পাহাড়ি নারী ধর্ষণের শিকার হলে উক্ত পাহাড়ি নারী পাল্টা প্রতিরোধ করে সেটলারকে দায়ের কোপে আহত করে। এই ঘটনার পাল্টা হিসেবে সেটলাররা সেনা, বিডিআর(বর্তমানে বিজিবি) ও আনসার-ভিডিপি’র সহায়তায় পাহাড়ি বসতিতে হামলা চালায়। সেনা-বিডিআরের সহযোগীতায় সেটলার বাঙালিরা শত শত বাড়িঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়, দা বটি কুড়াল দিয়ে আক্রমণ করে এবং সেনা বাহিনী ও বিডিআর(বিজিবি) নির্বিচারে গুলিবর্ষণ করে। এতে গ্রামের শত শত পাহাড়ি নিহত ও আহত এবং গুমের শিকার হয়। অনেকে প্রাণের ভয়ে পার্শ্ববর্তী ভারতে আশ্রয় গ্রহণ করে।

ঘটনার প্রতিবাদে পার্বত্য চট্টগ্রামে ব্যাপক বিক্ষোভ সংঘটিত হয়। বর্জন করা হয় পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণের ঐতিহ্যবাহী বৈসাবি (বৈসু-সাংগ্রাই-বিজু) উৎসব। সমতল থেকে বৈসাবি উৎসবে যোগ দিতে আসা লেখক-শিক্ষক-বুদ্ধিজীবী-সাংবাদিকগণও উক্ত ঘটনা জানতে পারলে তারাও প্রতিবাদ সংগ্রামে অংশ নিয়ে পাহাড়ি জনগণের সাথে সহমর্মিতা ও একাত্মতা প্রকাশ করেন। এই বর্বরোচিত ঘটনার পর কিছুদিনের মধ্যে রাজধানী ঢাকায় ‘পার্বত্য চট্টগ্রাম মৌলিক অধিকার সংরক্ষণ জাতীয় কমিটি’ গঠন করা হয় এবং এই সংগঠনের মাধ্যমে সমতলের লেখক-শিক্ষক-বুদ্ধিজীবী-সাংবাদিক-পেশাজীবি জনগণ পার্বত্য চট্টগ্রামে চলা রাষ্ট্রীয় নিপীড়ন নির্যাতনের বিরুদ্ধে সোচ্চার ভুমিকা গ্রহণ করেন।

বর্তমানে দেশের দুর্যোগপূর্ণ এই সময়ে নব্বই দশকে গড়ে ওঠা পাহাড় ও সমতলের জনগণের সেই মৈত্রী ও সংহতি আরো জোরদার করার সময় এসেছে।

লোগাং হত্যাকাণ্ডের ২৪ বছর পূর্তিতে তিন গণতান্ত্রিক সংগঠন (ডিওয়াইএফ, পিসিপি, এইচডব্লিউএফ) ও ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) ঢাকায় প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও স্মরণ সভায় আয়োজনের পাশাপাশি খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার লোগাং (ঘটনাস্থলে), খাগড়াছড়ি সদর ও রাঙামাটিতে নানা ধরণের প্রতিবাদী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

উক্ত কর্মসূচীতে দেশের সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে যোগদান করে গণশত্রুদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে তিন গণতান্ত্রিক সংগঠন।
—————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.