দিনাজপুরের পার্বতীপুরে সান্তালদের গ্রামে হামলার প্রতিবাদে ঢাকায় পিসিপির মানববন্ধন

0
0

সিএইচটিনিউজ.কম
Humanchain program in Dhaka1, 25.01.2015ঢাকা: দিনাজপুরের পার্বতীপুরে সান্তালদের ওপর ভূমিদস্যুদের হামলা, বাড়িতে অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর ও ব্যাপক লুটপাটের প্রতিবাদে ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)।

রবিবার (২৫ জানুয়ারি) বিকালে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে পিসিপি’র কেন্দ্রীয় সভাপতি থুইক্যচিং মারমার সভাপতিত্বে এবং ঢাকা শাখার সাধারণ সম্পাদক বিনয়ন চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরূপা চাকমা ও বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি সামিউল আলম।

বক্তারা বলেন, গত ২৪ জানুয়ারি সকাল ১০টার সময় ভূমি দস্যুরা জমি বিরোধকে কেন্দ্র করে পার্বতীপুরে সান্তাল গ্রামে হামলা করে। এসময় ভুমি দস্যুরা ১০টি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ এবং অর্ধশতাধিক বাড়িতে ভাংচুর ও লুটপাট করে। তারা টাকা পয়সা স্বর্ণালংকারসহ বহু ধন সম্পদ লুটপাট করে নিয়ে যায়। বক্তারা এ হামলা ও লুটপাটের ঘটনাকে রীতিমত ডাকাতি ও বর্বরতা হিসাবে চিহ্নিত করে তীব্র নিন্দা জানান।

বক্তরা আরো বলেন, ভূমিদস্যুদের এ হামলার উদ্দেশ্য হল সান্তালদের জমি বেদখল ও নিজ বাস্তুভিটা থেকে  উচ্ছেদ করা। বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, দোষী ভুমিস্যুদের গ্রেফতার না করে উল্টো পুলিশ নিরীহ ১৯জন সান্তালকে গ্রেফতার করেছে। এ থেকে স্পষ্ট হয় যে, প্রশাসন ভুমিদস্যুদের প্রশ্রয় দিতে সদা তৎপর রয়েছে।

মানববন্ধনে বক্তারা আরো বলেন, বাংলাদেশে পাহাড় ও সমতলে জাতিসত্তাদের জায়গা-জমি বেদখল এবং তাদের ওপর হামলা-নির্যাতনের মাত্রা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে, যা খুবই উদ্বেগজনক। শাসকগোষ্ঠী ক্ষমতাসীন দল ও প্রশাসনের ছত্রছায়ায় ভূমিদস্যু ও সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী আরো বেশি বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। পাহাড় ও সমতলে জাতিসত্তাদের ওপর হামলা বৃদ্ধি পাওয়ার পেছনে সরকারকে দায়ি করে বক্তারা বলেন, সংবিধানের বিতর্কিত পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে সরকার উগ্র বাঙালি জাতীয়তা চাপিয়ে দিয়ে অন্যান্য জাতিসত্তাদের অস্বীকার করেছে। সরকারের এই উগ্র জাতীয়তাবাদ ভূমিদস্যু ও সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীকে আরো বেপরোয়া করে তুলেছে।

বক্তারা সরকারের কাছে অবিলম্বে হামলাকারী ভূমিদস্যুদের গ্রেফতার করে বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, ক্ষতিগ্রস্ত সান্তালদের যথোপযুক্ত ক্ষতিপুরণ প্রদান ও আটককৃতদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।
—————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.