দিনাজপুরের পার্বতীপুরে সান্তাল গ্রামে হামলার প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে পিসিপি’র বিক্ষোভ

0
1

সিএইচটিনিউজ.কম
Khagrachari protest rally, 26.01.2016খাগড়াছড়ি: দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুরে সান্তাল গ্রামে হামলা, অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর ও ব্যাপক লুটপাটের প্রতিবাদে আজ সোমবার(২৬ জানুয়ারি) খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)।

“সংখ্যালঘু জাতিসত্তাদের উপর নিপীড়ন বন্ধ কর” এই দাবি সম্বলিত শ্লোগানে পিসিপি খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ শাখার উদ্যোগে সোমবার সকাল ১১টায় কলেজের দক্ষিণ গেইট থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি চেঙ্গী স্কোয়ারে গিয়ে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশের পর আবার একই স্থানে এসে শেষ হয়।

চেঙ্গী স্কোয়ানে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশে পিসিপি খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক এলটন চাকমার সঞ্চালনায় জেলা কমিটির তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সুভাষ চাকমা, খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক জেসীম চাকমা ও তথ্য ও প্রচার সম্পাদক নিকাশ চাকমা।

বক্তারা সান্তালদের উপর ভূমি দস্যুদের হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে বলেন, সংখ্যালঘু জাতিসত্তার ভূমি বেদখল, লুটপাট, বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ করাই যেন এদের রেওয়াজে পরিণত হয়েছে। পাহাড় ও  সমতলে এ ধরনের ঘটনা প্রতিনিয়তই বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঘটনার দিন পুলিশ হামলাকারী দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার না করে উল্টো ১৯ জন সান্তালকে গ্রেফতার করেছে।

বক্তারা আরো বলেন, শাসক শ্রেণী ও সরকার ফ্যাসিবাদি শাসন কায়েম করার জন্য একদিকে হামলা, ভূমি থেকে উচ্ছেদ, অপরদিকে “জন্ম নিয়ন্ত্রণ” পলিসির মাধ্যমে সংখ্যালঘু জাতিসত্তাগুলোকে সংখ্যালঘু থেকে আরো সংখ্যালঘুতে পরিণত করতে চাচ্ছে। ছাত্র সমাজ এটা কিছুতেই মেনে নিতে পারেনা।

বক্তারা অবিলম্বে সান্তাল গ্রামে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, ক্ষতিগ্রস্তদের যথাযথ ক্ষতিপূরণ প্রদান ও সার্বিক নিরাপত্তা বিধান এবং আটককৃতদের মুক্তি দেয়ার দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গত শনিবার সকালে জমির মালিকানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে বাঙালিরা পার্বতীপুরের হাবিবপুর চিড়াকুঠা সাঁন্তাল গ্রামে হামলা চালায়। এতে সান্তালদের ১০টি বসতবাড়িতে আগ্নিসংযোগ, কমপক্ষে ৪৫টি বসতবাড়ি ভাংচুর, সোনাদানা ও টাকা-পয়সা ছাড়াও গরু-ছাগল, ধান-চাল, সেচযন্ত্র, থালাবাসনসহ অন্যান্য মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এমনকি কয়েকটি বাড়ির আঙিনা থেকে নলকূপ খুলে নিয়ে যায়।
—————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.