দীঘিনালায় শহীদ ভরতদ্বাজ মণি’র ২৩তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

0
0

সিএইচটি নিউজ ডটকম
Dighinala vordaj moni prgm, 13.10.2015দীঘিনালা: “শহীদের রক্তের বীজ হতে জন্ম নেবে হাজারো সংগ্রামী” এই শ্লোগানে পার্বত্য চট্টগ্রামে গণতান্ত্রিক আন্দোলনের প্রথম শহীদ ভরতদ্বাজ মণি’র ২৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) সকাল ৭ ঘটিকার সময় দীঘিনালা বাবুপাড়ায় শহীদ ভরতদ্বাজ মণি’র স্মৃতিস্তম্বে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন শহীদ পরিবারের পক্ষে রুপম চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম দীঘিনালা থানা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক রবীন্দ্র চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশন দীঘিনালা থানা শাখার সভাপতি এন্টি চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ দীঘিনালা ডিগ্রি কলেজ শাখার সভাপতি নিকেল চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ দীঘিনালা উপজেলা শাখার সভাপতি জহেল চাকমা ও ইউপিডিএফ সদস্য মিলন ম্রো।

এরপর সকাল ১০.২০টায় দীঘিনালা ডিগ্রি কলেজে একাডেমিক ভবনে ১৬নং কক্ষে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ দীঘিনালা ডিগ্রি কলেজ ও দীঘিনালা উপজেলা শাখার উদ্যোগে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় দীঘিনালা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কনক জ্যোতি চাকমার সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন, দীঘিনালা উপজেলা শাখার সভাপতি জহেল চাকমা। সভায় আলোচনা করেন, দীঘিনালা ডিগ্রি কলেজ শাখার সভাপতি নিকেল চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি রতন স্মৃতি চাকমা। এছাড়া সভায় শহীদ ভরতদ্বাজ মণি চাকমার মেয়ে কৃপাবালা চাকমাও উপস্থিত ছিলেন।Dighinala vordaj moni prgm2, 13.10.2015

আলোচনা সভার শুরুতে ভরতদ্বাজ মণি সহ এযাবতকালে পাহাড়ি জনগণের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে যারা শহীদ হয়েছেন তাদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

আলোচকগণ বলেন, শাসকগোষ্ঠী পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কণ্ঠ রোধ করে দেওয়ার জন্য ১৯৯২ সালের ১৩ অক্টোবর শান্তিপূর্ণ মিছিলে বাধা দিয়েছে এবং ৭০ বছরের বৃদ্ধ ভরতদ্বাজ মণিকে হত্যা করেছে।  বর্তমানেও সরকার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের গণবিরোধী ১১ নির্দেশনা জারি করে পার্বত্য চট্টগ্রামে সেনাবাহিনীর অন্যায়-অত্যাচারের শাসনকে বৈধ করে দিয়েছে। পার্বত্য চট্টগ্রামে অঘোষিত জরুরি অবস্থা জারি করে রেখেছে। সেনাবাহিনী ও পুলিশ প্রশাসন পার্বত্য চট্টগ্রামের মানুষের কথা বলার আধিকার কেড়ে নিয়েছে।

আলোচকবৃন্দ সরকারের সকল প্রকার অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে চলমান অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে সামিল হওয়ার জন্য ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতি আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, ১৯৯২ সালের ১৩ অক্টোবর দীঘিনালায় পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের আয়োজিত শান্তিপূর্ণ ছাত্র-গণ সমাবেশে যোগ দিতে এসে সরকারের কায়েমী স্বার্থবাদী মহলের প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় দুষ্কৃতিদের হাতে নির্মমভাবে হত্যার শিকার হন ৭০ বছর বয়স্ক ভরতদ্বাজ মণি চাকমা।
———————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.