মিঠূন চাকমা ও দীলিপ রায়ের নিঃশর্ত মুক্তি এবং কুখ্যাত ৫৭ ধারা বাতিলের দাবী

পিসিপি’র চট্টগ্রাম মহানগর শাখার কাউন্সিল সম্পন্ন, ১৯ সসদ্য বিশিষ্ট নতুন কমিটি গঠন

0
0

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : ‘‘সকল জাতিসত্তার মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালু কর’’ দালালী, লেজুরবৃত্তি, সুবিদাবাদীতা পরিহার করে আপোষহীন সংগ্রামে পিসিপি’র পতাকা তলে সমবেত হোন এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)-এর চট্টগ্রাম মহানগর শাখার ১১তম কাউন্সিল চট্টগ্রাম নগরীতে অনুষ্ঠিত হয়। এতে ১৯ সদস্যের নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে।

pcpctgগতকাল শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় চেরাগী পাহাড় মোড়ে পিসিপি’র সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক ও খাগড়াছড়ি জেলা সংগঠক অলকেশ চাকমা উদ্বোধনী বক্তব্যের মাধমে চেরাগী পাহাড় মোড় থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি প্রেস ক্লাব ঘুরে ইসলামাবাদী মেমোরিয়াল হলে শেষ হয়। পরে সেখানে পলাশ চাকমার সঞ্চালনায় ও বিপুল চাকমারা সভাপতিত্বে ১১তম সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন শুরু হয়। অধিবেশনের শুরুতে পিসিপি’র গণতান্ত্রিক আন্দোলনে প্রথম শহীদ ভরতদ্বাজ মুনিসহ সকল শহীদদের স্মরণে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

প্রথম অধিবেশনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মহানগর শাখার দপ্তর সম্পাদক স্বরজিৎ চাকমা। এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন পিসিপি’ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক সুনয়ন চাকমা, পিসিপি’র কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক রতন স্মৃতি চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা দপ্তর সম্পাদক দ্বিতীয়া চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি অংগ্য মারমা, জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল চট্টগ্রাম -৩ এর সংগঠক সামিউল আলম, ইউপিডিএফ খাগড়াছড়ি জেলা সংগঠক অলকেশ চাকমা। অধিবেশনে সংহতি জানিয়ে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন এর চট্টগ্রাম মাহনগর শাখার সভাপতি লোকেন দে।pcpctg23-09

বক্তারা বলেন, ১৯৮৯ সালে ২০মে প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে পিসিপি পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে আপোষহীনভাবে সংগ্রাম করে যাচ্ছে। সরকার একদিকে ভূমি কমিশনের আইন সংশোধন করে পার্বত্য চট্টগ্রামের ভূমি সমস্যা সমাধানের জন্য কথা বলছে, অপর দিকে উন্নয়নের নামে তথাকথিত ইকো ট্যুরিজম ও পর্যটন সম্প্রসারণের পাহাড়িদের জায়গা দখলের চক্রান্ত-ষড়যন্ত্র অব্যাহত রয়েছে।

বক্তরা এসব চক্রান্ত-ষড়যন্ত্র ও তালবাহানা বন্ধ করে অবিলম্বে পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণের ভূমি সমস্যার প্রকৃত সমাধানের জন্য পাহাড়িদের ঐতিহ্যগত প্রথাগত ভূমি অধিকারকে স্বীকৃতি প্রদান এবং ৮০ দশকে জিয়া- এরশাদ আমলে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে নিয়ে আসা সেটলার বাঙ্গালীদেরকে আইনবহির্ভূতভাবে ইস্যু করা কুবলিয়তকে অবৈধ ঘোষণা করার দাবী জানান।

নেতৃবৃন্দ বর্তমান সরকারের সামালোচনা করে বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার ২০১৪ সালে ৫ জানুয়ারী একটি ভূয়া নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসার পর সারা দেশেব্যাপী এক ফ্যাসিষ্ট শাসন কায়েম করেছে। পার্বত্য চট্টগ্রামে বিশেষ করে খাগড়াছড়িতে, মিটিঙ মিছিল সভা-সমাবেশ এমনকি বৈ-সা-বি র‌্যালী পর্যন্ত করতে দেয়া হচ্ছে না। উন্নয়নের মেকী জোয়ারে জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকারসমূহকে প্রতিনিয়ত দদলিত করে যাচ্ছে। তথ্য প্রযুক্তি আইনের কুখ্যাত ৫৭ ধারার মাধ্যমে জনগণের মতামত প্রকাশের স্বাধীনতাকে ক্ষু্ন্ন করেছে। ইতিমধ্যে এই আইনে মিঠুন চাকমা ও দীলিপ রায়সহ অনেককে গ্রেফতার করে কারাগারে নিক্ষেপ করা হয়েছে।

pcpctg1শুধু তাই নয়, সরকার একদিকে যেমন পার্বত্য চট্টগ্রামে পর্যটন জোন গড়ে তোলার নামে পাহাড়ি উচ্ছেদের পাঁয়তারা চালাচ্ছে, অপরদিকে দেশের স্বার্থ ও জনগণের মতামতকে তোয়াক্কা না করে সুন্দরবন সংলগ্ন রামপালে কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মান করতে যাচ্ছে।

বক্তারা অবিলম্বে খাগড়াছড়ির আলুটিলা ও ঝরনা টিলায় ‘বেজা’ কর্তৃক পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার কার্যক্রম বন্ধ ও সুন্দরবন সংলগ্ন রামপালে কয়লাভিক্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মান প্রকল্প বাতিলসহ তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় আটক পিসিপি’র সাবেক সভাপতি ও ইউপিডিএফ নেতা মিঠুন চাকমা ও ছাত্রনেতা দীলিপ রায়ের নিঃশর্ত মুক্তির দাবী জানান।

প্রথম অধিবেশন শেষে বেলা ২টার দিকে দ্বিতীয় অধিবেশন শুরু হয়। দ্বিতীয় অধিবেশনে সাংগঠনিক রিপোর্ট পেশ করা হয় এবং এর উপর আলোচনা-পর্যালোচনা করা হয়। এরপর উপস্থিত সকলের সর্বসম্মতিক্রমে পলাশ চাকমাকে সভাপতি ও জিকো চাকমা সাধারণ সম্পাদক এবং স্বরজিৎ চাকমা সাংগঠনিক সম্পাদক করে ১৯ সদস্যের নতুন কমিটি গঠন করা হয়।

____________
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.