পিসিপি’র নেতা কর্মীদের মুক্তিসহ বিভিন্ন দাবিতে ঢাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি পেশ

0
0

dhaka13-11-16ঢাকা : পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)-র গ্রেপ্তারকৃত নেতা বিপুল চাকমা, অনিল চাকমা, বিনয়ন চাকমাসহ সকল নেতাকর্মীদের মুক্তি, গোবিন্দগঞ্জের সুগার মিলে সান্তাল-বাঙালি বসতিতে হামলা-খুন-লুটপাট এবং নাসিরনগর-রাজশাহী-দিনাজপুরে লাগাতার সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক সাজার দাবিতে আজ ১৩ নভেম্বর রবিবার দুপুর ১২ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য চত্বরে এক বিক্ষোভ সমাবেশ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় অভিমুখে মিছিল সহকারে স্মারকলিপি পেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)।

পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের শতাধিক নেতাকর্মী সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলায় মিলিত হয় এবং সেখান থেকে বিক্ষোভ মিছিল সহকারে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে রাজু ভাস্কর্য চত্বরে এসে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বিপুল চাকমা। বক্তব্য রাখেন পিসিপি কেন্দ্রীয় কমিটি তথ্য প্রচার সম্পাদক রনেল চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি ও ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর সংগঠক সদ্য কারামুক্ত মিঠুন চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি ও ইউপিডিএফ এর সংগঠক মাইকেল চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নিরূপা চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বরুন চাকমা। সভা পরিচালনা করেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি’র অর্থ সম্পাদক রতন স্মৃতি চাকমা।dhaka-3-13-11-16

সমাবেশে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী ছাত্র ঐক্য জোটের সমন্বয়ক ও বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এম এম পারভেজ লেলিন, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রী কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ও প্রগতিশীল ছাত্র জোটের সমন্বয়ক ইকবাল কবির, জাতীয় ছাত্রদলের আহ্বায়ক জহিরুল ইসলাম মুন্না। এছাড়াও আরো সংহতি প্রকাশ করেছেন ছাত্র গণমঞ্চের সভাপতি শাহিদ বিলাস।

সমাবেশে বক্তারা অবিলম্বে ছাত্রনেতা বিপুল-বিনয়ন-অনিল চাকমা ও দিলীপ রায়কে নিঃশর্ত মুক্তির দাবী জানান। এছাড়াও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে ধর্মীয় সংখ্যালঘু হিন্দুদের বাড়িঘর ও মন্দিরে হামলা, লুটপাট ও ভাচুর; গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের বাগদাফার্ম-এ সান্তাল জাতিগোষ্ঠীর উপর হামলা, বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ, গ্রাবাসীদের উপর পুলিশের গুলিবর্ষণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

dhaka213-11-16সমাবেশে বক্তারা আরো বলেন, ৯ নভেম্বর গোবিন্দগঞ্জে পুলিশ যে বর্বরতা চালিয়েছে তা গণহত্যার সামিল। সেখানে এখনো উচ্ছেদের শিকার হওয়া হাজার হাজার গৃহহীন মানুষ অনাহারে অভূক্ত অবস্থায় খোলা আকাশের নীচে বসবাস করতে বাধ্য হচ্ছে। এখনো পুরো বাগদাফার্ম এলাকাকে পুলিশ অবরুদ্ধ করে রেখেছে। সমাবেশ থেকে অবিলম্বে গোবিন্দগঞ্জে সান্তাল জনগোষ্ঠী ও ব্রাহ্মনবাড়িয়ার নাসিরনগরে ধর্মীয় সংখ্যালঘু হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা, লুটপাট ও ভাংচুরের সাথে জড়িতদের শাস্তির দাবি জানান।
———————-

সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.