রবিবার, ২৫ জুন, ২০১৭
সংবাদ শিরোনাম

“বাংলাদেশে খুন করা কোন ব্যাপার নয়”- সন্তু লারমাকে করুণালংকার ভিক্ষুর হুমকি

সিএইচটি নিউজ ডটকম

ঢাকা: জেএসএস-সন্তু গ্রুপের প্রাক্তন পররাষ্ট্র মন্ত্রী করুণালংকার ভিক্ষু chtnews.com-এর সাথে একটি নতুন সাক্ষাত্কারে “বাংলাদেশে খুন করা কোন ব্যাপার নয়” উল্লেখ করে গ্রেনেড মেরে সন্তু লারমাকে হত্যার প্রচ্ছন্ন হুমকি দিয়েছেন। তিনি পার্বত্য চট্টগ্রামের মুসলিম বসতিস্থাপনকারী ও বাংলাদেশ সৈন্যবাহিনী সম্পর্কেও বিভিন্ন তথ্য উল্লেখ করেছেন। এছাড়া তিনি নিজেদের শক্তি সামর্থ্য সম্পর্কেও আলোচনা করেছেন।

পার্বত্য চট্টগ্রামে কত সংখ্যক মুসলিম বসতি স্থাপনকারী এবং সৈন্য আছে এবং তাদের বিষয়ে সন্তু লারমার কি নীতি, এ প্রসঙ্গে করুণালংকার ভিক্ষু বলেন “রাঙামাটিতে সরকারিভাবে মাত্র ১৭ জন জুম্ম বেশি। খাগড়াছড়িতে ৩৭,০০০ মুসলমান ভোটার বেশি। বান্দরবনে ৯৩,০০০ মুসলমান ভোটার বেশি। পার্বত্য চট্টগ্রামে বাংলাদেশ আর্মির পাঁচটি ব্রিগেড রয়েছে এবং এবার ১০ নং. ডিভিশন রামুতে  স্থাপন  করেছে। পার্বত্য চট্টগ্রামে সর্বমোট বাংলাদেশ আর্মির ২৩টি  ইনফেন্ট্রি (পদাতিক সৈন্যবাহিনী)  ব্যাটেলিয়ন, বিজিবি-র  ২৩ টি  ব্যাটেলিয়ন এবং ১৭টি আনসার বাহিনীর ব্যাটেলিয়ন রয়েছে। ভিডিপি এবং আনসার বাহিনী মিলে ৬০০ কোম্পানি রয়েছে এবং তার মধ্যে ৪২০ কোম্পানি খাগড়াছড়িতে রয়েছে এবং রাঙামাটিতে ৮০ কোম্পানি রয়েছে। একটা প্লাটুনে ৩১ জন, তাহলে কতজন রয়েছে? এসব খবর আমাদের আছে। আমরা এসবের বিরুদ্ধে না করে, কেন নিজেদের বিরুদ্ধে মারার জন্য উস্কানি দিই? (সন্তু লারমাকে উদ্দেশ্য করে।)”

নিজেদের শক্তি সম্পর্কে জানতে চাইলে করুণালংকার ভিক্ষু বলেন, “আমাদের সেই শক্তি আছে। হয়ত সরকারের সাথে ব্যাপকভাবে দুই তিন দিন, পাঁচ সাত দিন যুদ্ধ করতে পারবো না, কিন্তু আমাদের যুদ্ধ করার ক্ষমতা রয়েছে। রাত দিন আমরা মারতে পারি, দিন রাত আতঙ্ক (terrorism) সৃষ্টি করতে পারি ।”

সন্তু বাবু যদি আর্মিদের সাথে (বাংলাদেশ আর্মি) সাথে মিলে যায় তাহলে সন্তু বাবু এবং আর্মিদের কিভাবে deal করতে পারি, এই প্রশ্নের উত্তরে করুণালংকার ভিক্ষু বলেন, “টাকা দিলে আজকাল কি করা না যায়? ‘বাংলাদেশের মধ্যে খুন করা কোন ব্যাপার নয়।’ বিকেল বেলায়, সন্ধ্যার সময় যদি দুই-তিনটা গ্রেনেড নিক্ষেপ করা হয়, কে কাকে ধরবে? তাই না?”

করুণালংকার ভিক্ষুর এই সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে মনে করা হচ্ছে, সন্তু লারমা করুণালংকার ভিক্ষুর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়েছেন এবং সন্তু গ্রুপ আবার বিভক্ত হচ্ছে।

সন্তু লারমার বিশ্বাসযোগ্যতার উপর করুণালংকারের অভিমত পরে প্রকাশিত হবে। সাক্ষাত্কার আজ পর্যন্ত হুবহু প্রকাশের জন্য করুণালংকারের ধন্যবাদও পরে প্রকাশিত হবে।
—————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।