বান্দরবানে বন মন্ত্রী আত্মীয়ের অবৈধ ইটভাটায় পুড়ছে কাঠ, ব্যবস্থা নিচ্ছে না প্রশাসন

0
1

বান্দরবান প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম

আলীকদমে বন মন্ত্রী আত্মীয়ের নিষিদ্ধ অস্থায়ী ড্রাম চিমনির অবৈধ ইটভাটায় কাঠ পোড়ানোর দৃশ্য।
আলীকদমে বন মন্ত্রী আত্মীয়ের নিষিদ্ধ অস্থায়ী ড্রাম চিমনির অবৈধ ইটভাটায় কাঠ পোড়ানোর দৃশ্য।

বান্দরবানের আলীকদম উপজেলা প্রশাসনের সামনেই  বন মন্ত্রী আত্মীয়ের অবৈধ ইটভাটায় বিভিন্ন প্রজাতির মূল্যবান গাছ কেটে পোড়ানো হচ্ছে। প্রতিদিন গড়ে তিনশ’মন জ্বালানী কাঠ পোড়ানো হলেও ব্যবস্থা নিচ্ছেন না প্রশাসন। এমনিতেই অবৈধ ভাটা, তাতে  পুড়ছে বেআইনিভাবে জ্বালানী কাঠ।

আলীকদম প্রেসক্লাব সভাপতি মমতাজ জানান,অবৈধ এই ইটভাটায় নিষিদ্ধ অস্থায়ী ড্রাম চিমনির মাধ্যমে বিভিন্ন প্রজাতির মূল্যবান গাছ কেটে পোড়ানো হচ্ছে। উপজেলা প্রশাসন ও বন বিভাগের কর্মকর্তারা ইটভাটায় কোন সময় পরিদর্শন করতে যান না। বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পরও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না প্রশাসন। জানা যায়, মন্ত্রীর আত্মীয় ইটভাটার মালিক জনৈক সওকত চট্টগ্রামে থাকেন। তার মুঠোফুনে যোগাযোগ করেও অবৈধ ইটভাটায় কাঠ পোড়ানোর বিষয়ে সদুত্তর দিচ্ছেন না তিনি। এলাকাবাসীর অভিযোগ,বন মন্ত্রীর আত্মীয় হবার সুবাদে ব্যবস্থা নিতে পারছেন না প্রশাসন ।

পরিবেশ কর্মী দেনদোহা জলাই প্রশ্ন করে বলেন, এটি কি বাংলাদেশের বাইরে? প্রকাশ্যেই  বন উজাড় করে বেআইনিভাবে কাঠ পোড়ানোর ফলে বিপর্যস্ত pic 06(1)হচ্ছে পরিবেশ। সারা বিশ্বের মানুষ যখন জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে উদ্বিগ্ন, ঠিক এই সময়ে ইটভাটার প্রভাবশালী মালিকরা বন উজাড় করে পরিবেশ ধংস করে যাচ্ছে। প্রশাসন নিশ্চুপ রয়েছে। এতে প্রতিদিন পুড়ে যাচ্ছে কয়েক হাজার মন জ্বালানী কাঠ।

জেলা প্রশাসক কে.এম.তারিকুল ইসলাম জানান,বান্দরবানে কোন বৈধ ইটভাটা নেই। বেঅইনি ভাবে কাঠ পোড়ানো বিষয়ে নিবৃত্ত করার জন্য শক্তিশালী ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালানো হবে।

 


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.