বাবুছড়ায় বিজিবি কর্তৃক উচ্ছেদকৃত ২১ পরিবারের আশ্রয় এখন পরিত্যক্ত কৃষি অফিসে

0
0

সিএইচটিনিউজ.কম
Babucharakrishiofficeদীঘিনালা প্রতিনিধি: দীর্ঘ  চার মাস ৮দিন স্কুল ঘরের জীবন শেষে বাবুছড়া এলাকার যত্ন কুমার ও শশী মোহন কার্বারী পাড়া থেকে বিজিবি ৫১ ব্যাটালিয়ন কর্তৃক উচ্ছেদ হওয়া ২১ পরিবার গাদাগাদি করে আশ্রয় নিয়েছে বাবুছড়া ইউনিয়নের পরিত্যক্ত একটি কৃষি অফিস ঘরে। গত ১৮ অক্টোবর বিদ্যালয় কক্ষ ছেড়ে দিয়ে তারা এই অফিস ঘরে আশ্রয় নিতে বাধ্য হন।

গত ১০ই জুন ২০১৪ বিজিবি ৫১ ব্যাটালিয়নের সদস্যরা যত্ন কুমার ও শশী মোহন কার্বারী পাড়াবাসীর উপর আক্রমণ করে তাদের জায়গা জমি জবরদখল করে নিলে উক্ত গ্রামবাসীরা উচ্ছেদ হয়ে দঃ বাবু ছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়। আগামী জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষা তাদের কারণে সমস্যা হতে পারে। তাই তাদেরকে সেখান থেকে স্থানান্তরের দাবি জানিয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি দীঘিনালা উপজেলা চেয়ারম্যান বরাবর আবেদন জানায়। উক্ত আবদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৬ই অক্টোবর উপজেলা চেয়ারম্যান ইউপি চেয়ারম্যানগণ সহ সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে আলোচনায় বসেন। উক্ত আলোচনায় সিদ্ধান্ত মোতাবেক গত ১৭ই অক্টোবর উপজেলা চেয়ারম্যান নব কমল চাকমার নেতৃত্বে উক্ত ২১ পরিবারকে বিদ্যালয় ছাড়ায় আহবান জানানো হয়। বিদ্যালয়ে এসএসসি ও জেএসসি পরীক্ষার্থী ছাত্র/ছাত্রীদের তথা এলাকাবাসীর ভবিষ্যৎ চিন্তা করে গত ১৮ই অক্টোবর তারা বিদ্যালয় কক্ষ ছেড়ে দিয়ে বাবুছড়া ইউনিয়নের দীর্ঘ দিনের পরিত্যাক্ত কৃষি অফিসে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়। বর্তমানে তারা কৃষি অফিসের ছোট ছোট ২টি খামরায় গোয়াল ঘরের গরুর মত বসবাস করতে বাধ্য হচ্ছে। তাদের এই দুরবস্থা দেখে এলাকাবাসী তাদের জন্য দু-ছালা একটি বাঁশের ঘর তুলে দিচ্ছে।

এদিকে, এ ঘরটি নিয়েও বাধ সেধেছে কৃষি কর্মকর্তারা। দীর্ঘদিন ধরে পরিত্যক্ত থাকলেও এখন তারা ঘরটি বেদখলের অভিযোগ এনে এটি দখলমুক্ত করার জন্য উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ড. আবদুল আউয়াল স্বাক্ষরে উপজেলা চেয়ারম্যানের বরাবরে আবেদন জানানো হয়েছে।

সরকার ও প্রশাসনের নানা কূটকৌশলের কারণে এই আশ্রয়স্থল থেকেও যদি তাদের তাড়িয়ে দেওয়া হয় তাহলে কোথায় গিয়ে আশ্রয় নেবে এ নিয়ে তারা চরম অনিশ্চয়তার মধ্যেই রয়েছেন।
———–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.