মাটিরাংগা, দীঘিনালা ও পানছড়িতে পিসিপি’র নেতা-কর্মীসহ আটক ৭

0
1

সিএইচটি নিউজ ডটকম
Arrest5খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাংগা, দীঘিনালা ও পানছড়িতে পিসিপি’র নেতা-কর্মীসহ ৭ জনকে আটক করেছে সেনাবাহিনী। আজ মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) ৮ সংগঠনের অবরোধ কর্মসূচি বানচালের উদ্দেশ্যে তাদের আটক করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মাটিরাংগার সূত্র জানায়, খাগড়াছড়িতে ফিলিস্তিন সংহতি দিবসের সমাবেশে সেনা-পুলিশের হামলার প্রতিবাদে ও আটক হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতিসহ দুই নেত্রীর মুক্তির দাবিতে ৮ গণসংগঠনের ডাকা আজকের(মঙ্গলবার) আধাবেলা সড়ক অবরোধ কর্মসূচি সফল করতে মাটিরাংগা উপজেলার পিসিপি নেতা-কর্মীরা খাগড়াছড়ির পর্যটন কেন্দ্র আলুটিলার রিছাং ঝর্ণা এলাকার হৃদয় মেম্বার পাড়ার একটি বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। অবরোধ শুরু হওয়ার কয়েক ঘন্টা আগে ভোররাত আনুমানিক ৩টার দিকে একদল সেনাসদস্য তাদের অবস্থানরত বাড়িটি ঘেরাও করে সেখান থেকে তাদেরকে আটক করে নিয়ে যায়।

আটককৃতরা হলেন- পিসিপি মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক দীপঙ্কর ত্রিপুরা, মাটিরাংগা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ ত্রিপুরা, মাটিরাংগা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় শাখার সহ সভাপতি বট্ট ত্রিপুরা, মাটিরাংগা কলেজ শাখার সভাপতি সুরেশ চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক নয়ন চাকমা। আটককৃতরা সবাই স্কুল-কলেজের ছাত্র। আটকের পর তাদেরকে মাটিরাংগা জোনে নিয়ে যাওয়া হয়।
এ রিপোর্ট লেখার সময় পর্যন্ত (সন্ধ্যা ৬টা) তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হয়নি। আটককৃতদের অভিভাবকরা খবরাখবর নিতে মাটিরাংগা জোনে গেছেন বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে দীঘিনালা থেকে প্রাপ্ত খবরে জানা গেছে, অবরোধ কর্মসূচি পালন শেষে বাড়ি ফেরার পথে দীঘিনালা গার্লস স্কুলের পাশ্ববর্তী এলাকা থেকে পিসিপি’র দীঘিনালা ডিগ্রী কলেজ শাখার সদস্য রুপেন চাকমাকে আটক করা হয়।

এছাড়া অবরোধ চলাকালে পানছড়ির নালকাবা এলাকা থেকে অন্তর চাকমা নামে স্থানীয় এক যুবককে আটকের খবর পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, সড়ক অবরোধ কর্মসূচি বানচাল করতে সেনাবাহিনী ব্যাপক তৎপরতা চালায়। বিভিন্ন জায়গায় হুমকিমূলক সেনা টহল জোরদার করা হয়। খাগড়াছড়ি শহরের নারাঙহিয়া, স্বনির্ভরসহ বিভিন্ন স্থানে সেনা সদস্যদের হুমকিমূলকভাবে অবস্থান করতে দেখা গেছে।

সর্বশেষ প্রাপ্ত খবরে জানা গেছে, রাত পৌনে ৮টার দিকে দীঘিনালায় আটক রুপেন চাকমাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

খবরটির ইংরেজী [English] ভার্সন পড়ুন এখানে
——————
সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.