মাটিরাঙ্গায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে ইউপিডিএফ

0
7
মাটিরাঙ্গা : খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলার ৬নং মাটিরাঙ্গা ইউপির ৮নং ওয়ার্ডের ধনীরাম পাড়া, অভ্যা পাড়া ও কাচার পাড়া গ্রামের সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদের পাশে দাঁড়িয়েছে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) রামগড় ইউনিট। আজ সোমবার সকাল ১০টায় এলাকার স্থানীয় কার্ব্বারী ও গণমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত অভাবি পরিবারের মাঝে চাউল বিতরণ করা হয়।
শুরুতে বন্যাকবলিত পরিবারদের নিয়ে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা আয়োজন করা হয়। সভা পরিচালনা করেন প্রেম ত্রিপুরা। বক্তব্য রাখেন স্থানীয় যুব সমাজের প্রতিনিধি কার্তিক ত্রিপুরা ও স্থানীয় মুরুব্বী ধরণী ত্রিপুরা এবং ইউপিডিএফ রামগড়-মাটিরাঙ্গা এলাকার স্থানীয় সংগঠক হরি কমল ত্রিপুরা। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ইউপিডিএফ রামগড় ইউনিটের নিতুন চাকমা।
কার্তিক ত্রিপুরা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে একমাত্র ইউপিডিএফ-ই জনগণের যে কোন দুঃসময়ে পাশেে এসে দাঁড়ায়। তিনি প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ইউপিডিএফ-এর প্রতি ধন্যবাদ জানান।
স্থানীয় মুরুব্বী ধরণী ত্রিপুরা বলেন সরকার বড় বড় গলায় উন্নয়নের কথা বলছে অথচ আমরা সাধারণ অভাবী মানুষ না খেয়ে মারা যায় যায় অবস্থা। কেউ আমাদের খবর রাখে না।
তিনি ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেন, আমরা স্থানীয় সরকারী প্রতিষ্ঠানে গিয়েছি, আমাদের অভাব অনটনের কথা বলেছি, কিন্তু কেউ এগিয়ে আসেনি। সাহায্য দেয়নি।
তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে আঞ্চলিক দলগুলোর মধ্যে একমাত্র ইউপিডিএফ ছাড়া কোন দল জনগণের দুঃখ-দুর্দশার সময় এগিয়ে আসে না। জনগণের এই দুর্দিনে নিজ থেকে জনগণের পাশে দাঁড়ানোর জন্য এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে ইউপিডিএফ-এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
ইউপিডিএফ সংগঠক হরি কমল ত্রিপুরা সম্প্রতি পাহাড় ধস ও বন্যার পানিতে ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করে বলেন, রামগড়-মাটিরাঙ্গা-মানিকছড়ি এলাকায় সরকার কর্তৃক সৃষ্ট সেটেলার সমস্যা আজ প্রাকৃতিক দুর্যোগের চাইতেও বড় দুর্যোগে পরিণত হয়েছে। সেটেলাররা এখানকার প্রায় ৮০ শতাংশ ভূমি দখল করে নিয়েছে। প্রকৃতি দু’একটি পরিবারকে ক্ষতিসাধন করলেও সরকার গোটা এলাকার জনগণকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। শত শত পরিবারকে ভূমি থেকে উচ্ছেদ করেছে। তিনি প্রাকৃতিক দুর্যোগের পাশাপাশি মনুষ্যসৃষ্ট মহাদুর্যোগের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে সংগ্রাম গড়ে তোলার আহ্বান জানান।
_________
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.