মাটিরাঙ্গা-গুইমারায় সেটলার হামলার প্রতিবাদে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তিন সংগঠনের বিক্ষোভ

0
0

সিএইচটি নিউজ ডটকম
ঢাকা: মাটিরাঙ্গা-গুইমারায় ষড়যন্ত্রমূলWP_20160221_014কভাবে পাহাড়িদের ওপর নির্বিচারে সেটলার হামলা-তাণ্ডব চালানোর প্রতিবাদে আজ ২১ ফেব্রুয়ারি রবিবার বিকেল ৫:২০ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বিক্ষোভ মিছিল করেছে পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন গণসংগঠন গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ ও হিল উইমেন্স ফেডরেশন । বিক্ষোভ মিছিলটি মধুর ক্যান্টিন হতে শুরু হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবন ও কেন্দ্রীয় লাইব্রেরী প্রদক্ষিণ করে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে সমাবেশের রূপ নেয়। এ সময় আশেপাশের লোকজন পথচারী গভীর উৎসুক্য নিয়ে সমাবেশের প্রতি দৃষ্টি নিবদ্ধ করে।  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এক প্রতিবাদী আবহ তৈরি হয়। তাৎক্ষণিকভাবে সংগঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে পিসিপি’র কেন্দ্রীয় নেতা বিনয়ন চাকমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের সভাপতি মাইকেল চাকমা ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রিনা চাকমা।

যুব ফোরামের নেতা মাইকেল চাকমা তার বক্তব্যে মাটিরাঙ্গা ও গুইমারায় পাহাড়িদের ওপর সেটলারদের নির্বিচার হামলাকে ষড়যন্ত্র হিসেবে মন্তব্য করেন। মহান ভাষা আন্দোলনের ফসল একুশে ফেব্রুয়ারিকে গৌরবদীপ্ত অভিহিত করে তিনি আরও বলেন, ‘পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী জবরদস্তি করে উর্দু চাপিয়ে দিতে চাইলে মাতৃভাষা অবমাননার প্রতিবাদে বাঙালিরা আত্মাহুতি দিয়েছিলেন। মাটিরাঙ্গা-গুইমারায় হামলা করে এ মহান দিবসকে কালিমা লিপ্ত করা হয়েছে। পার্বত্য চট্টগ্রামে নিয়োজিত সেনাবাহিনীর নিকট জাতীয় গুরুত্বসম্পন্ন দিবসের কোন তাৎপর্য নেই। শুধু একুশে ফেব্রুয়ারি নয়, ২০১৪ সালে রাঙ্গামাটির বগাছড়িতে বিজয় দিবসের দিনে অগ্নিসংযোগ, লুটপাট ও হামলায় প্ররোচিত করে সেনাবাহিনী ১৬ ডিসেম্বরের মত একটি দিবসকে কলঙ্কিত করেছিল।’ তিনি মইনুদ্দিন-ফকরুদ্দিন সরকারের জরুরি অবস্থার সময় ২০১০ সালে সাজেক ও খাগড়াছড়িতে ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৩ ফেব্রুয়ারি তাণ্ডবলীলা চালানোর কথাও মনে স্মরণ করেন।WP_20160221_031

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় কর্তৃক ১১দফা জারির কারণে পার্বত্য চট্টগ্রামে কার্যতঃ সেনা শাসন চলছে মন্তব্য করে তিনি আরও বলেন,‘ সেনা শাসনের ভুক্তভোগী হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা এর ভয়াবহতা ভাল করে জানেন। খেলার মাঠে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সেনা কর্মকর্তাদের শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে সে সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা ফুঁসে উঠে। ক্যাম্পাস থেকে সেনা তাঁবু গুটিয়ে নিতে বাধ্য করে প্রতিবাদী ছাত্ররা। ঢাকাসহ সারাদেশের ছাত্রসমাজ তখন প্রতিবাদ বিক্ষোভে ফেটে পড়ে।’

যুব ফোরাম নেতা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে দাঁড়িয়ে এ সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠের শিক্ষক শিক্ষার্থীদের পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়িদের ন্যায়সঙ্গত আন্দোলনের পাশে দাঁড়াতে আহ্বান জানান।

হিল উইমেন্স ফেডারেশনের নেত্রী রিনা চাকমা মাটিরাঙ্গা-গুইমারায় সেটলারদের হামলার পেছনে উস্কানি রয়েছে বলে মন্তব্য করেন। সভার সভাপতি পিসিপি নেতা বিনয়ন চাকমা ঘটনার জন্য পার্বত্য চট্টগ্রামে নিয়োজিত উগ্রসাম্প্রদায়িক মনোভাবাপন্ন কায়েমী স্বার্থবাদী সেনাচক্রকে দায়ী করে কঠোর সমালোচনা করেন।
—————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.