মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষাসহ ৫ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে নান্যাচরে পিসিপি’র বিক্ষোভ

0
0

সিএইচটি নিউজ ডটকম
Nannyachar protest rally, 08.09.2015নান্যাচর(রাঙামাটি): মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষাসহ শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবি বাস্তবায়ন এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অগণতান্ত্রিক ১১ নির্দেশনা বাতিলের দাবিতে রাঙামাটির নান্যাচরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) নান্যাচর থানা শাখা।

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় নান্যাচর উপজেলা মাঠ থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি নান্যাচর বাজার প্রদক্ষিণ করে আবার উপজেলা মাঠে এসে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে পিসিপি’র নান্যাচর থানা শাখার সভাপতি রিপন আলো চাকমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন রাঙামাটি জেলা শাখার সহ সভাপতি কুনেন্টু চাকমা, সাধারণ সম্পাদক অনিল চাকমা ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের রাঙামাটি জেলা শাখার সদস্য মন্টি চাকমা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ ২০০০ সাল থেকে পার্বত্য চট্টগ্রামসহ দেশের সকল সংখ্যালঘু জাতিসমূহের নিজ নিজ মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালুর দাবিতে আন্দোলন করে আসছে। কিন্তু সরকার এখনো দাবি বাস্তবায়নে এগিয়ে আসেনি। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের মাতৃভাষায় শিক্ষার অধিকার আদায়ের এই আন্দোলন চলবে।

বক্তারা প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় জেলা পরিষদের দুর্নীতির কথা উল্লেখ করে বলেন, জেলা পরিষদ এখন দুর্নীতি আখড়া ও দলীয় পুনর্বাসন কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। এবারের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ব্যাপক অনিয়ম-দুর্নীতি ও জালিয়াতি করা হয়েছে। এভাবে দুর্নীতির মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগের ফলে পার্বত্য চট্টগ্রামে শিক্ষা ব্যবস্থার দিনদিন অবনতি হচ্ছে।

বক্তারা বলেন, সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামে উন্নয়নের কথা বলে, উচ্চ শিক্ষার প্রলোভন দেখিয়ে পাহাড়ি উচ্ছেদের নীলনক্সা বাস্তবায়ন করছে। যার কারণে এখানে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার মান বৃদ্ধির উদ্যোগ গ্রহণ না করে সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণের আপত্তি সত্ত্বেও রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং মেডিকেল কলেজ স্থাপনে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, সরকার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ১১টি অগণতান্ত্রিক নির্দেশনা জারি করে পার্বত্য চট্টগ্রামে কার্যত সেনাশাসনকে বৈধতা দিয়েছে। এর মাধ্যমে প্রতিনিয়ত নিপীড়ন-নির্যাতন, ধরপাকড়, নারী নির্যাতন, ভুমি বেদখলের মতো ঘটনা ঘটছে।

বক্তারা অবিলম্বে মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষাসহ পিসিপি’র উত্থাপিত ৫ দফা দাবি বাস্তবায়ন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অগণতান্ত্রিক ১১ নির্দেশনা বাতিল, নিপীড়ন-নির্যাতন, অন্যায় ধরপাকড়, ভূমি বেদখল ও নারী নির্যাতন বন্ধের দাবি জানান।

উল্লেখ্য, পিসিপি’র শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবি হলো: ১. পার্বত্য চট্টগ্রামের সকল জাতিসত্বার মাতৃভাষার মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষা লাভের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে, ২. স্কুল-কলেজের পাঠ্যপুস্তকে জতিসত্বার প্রতি অবমাননাকর বক্তব্য বাদ দিতে হবে, ৩. পাহাড়ি জাতিসত্তার বীরত্বব্যঞ্জক কাহিনী ও সঠিক সংগ্রামী রাজনৈতিক ইতিহাস স্কুল-কলেজের পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভূক্ত করতে হবে, ৪. বাংলাদেশের সকল জাতিসত্তার সঠিক তথ্য সম্বলিত পরিচিতিমূলক রচনা জাতীয় শিক্ষাক্রমে অন্তর্ভূক্ত করতে হবে ও ৫. পার্বত্য কোটা বাতিল করে পাহাড়িদের বিশেষ কোটা চালু করতে হবে।
—————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.