মানিকছড়িতে আ’ লীগের হুমকিতে চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে পারেননি মংসা প্রু চৌধুরী

0
1

Manikchariমানিকছড়ি প্রতিনিধি ।। খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলার ২নং বাটনাতলী ইউনিয়নে আগামী ২৩ এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে চাইলেও আওয়ামী লীগের হুমকির কারণে শেষ পর্যন্ত প্রার্থী হতে পারেননি মংসা প্রু চৌধুরী।

বাটনাতলী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম মোহন। মনোনয়ন পাওয়ার পর থেকে তিনি স্থানীয় পাহাড়ি মুরুব্বীদের মাধ্যমে মংসা প্রু-কে চাপ দিতে থাকেন। তার যুক্তি হচ্ছে মংসা প্রু নির্বাচন করলে তিনি জিততে পারবেন না, বিএনপি প্রাথী জয়ী হবে। তিনি মংসা প্রুকে হুমকি দিয়ে বলেন, নির্বাচনে যদি আমি না জিতে বিএনপি প্রার্থী জিতে যায় তাহলে তার দায় তাঁকে(মংসা প্রুকে) নিতে হবে। এরপরও মংসা প্রু নির্বাচনে প্রার্থী হতে অটল থাকলে গত ২১ মার্চ শহীদুল বলেন, নির্বাচনে দাঁড়ালে মংসা প্রু’র সমস্যা হবে। এর পরদিন ২২ মার্চ খাগড়াছড়ি সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী মানিকছড়ি গিরি মৈত্রী কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠান শেষে মংসা প্রু-কে কলেজের অধ্যক্ষ মংসাউ মারমার বাড়িতে ডেকে নেন। এ সময় কংজরী তাঁকে বলেন, তুমি সম্মানীয় বংশের মানুষ। তোমাদেরকে আমরা সম্মান করি। সম্মান নিয়ে থাকতে চাইলে নির্বাচন বাদ দিন। শহীদুল চেয়ারম্যান হলে তোমার সাথে ভাগ-বাটোয়ারা করে কাজ চালাবে।

কংজরী আরো বলেন, তোমার মান-সম্মান রেখেই আজ ডেকে কথা বলছি। অন্য কেউ হলে অনেক আগে ব্যবস্থা নেয়া হতো।

আওয়ামী লীগ থেকে এ ধরনের হুমকি পাওয়ার পর মংসা প্রু এলাকার লোকজনের সাথে কথা বলে নির্বাচন না করার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার কয়েকজন মুরুব্বী বলেন, আওয়ামী লীগ মুখে গণতন্ত্রের কথা বলে, অথচ একজন স্বতন্ত্র প্রার্থীকে নির্বাচন করতে দিলো না।

এদিকে, মংসা প্রু চৌধুরীর নির্বাচন না করার খবর প্রকাশ হলে এলাকার লোকজনের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।
—————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.