মানিকছড়িতে এক পাহাড়ির নির্মাণাধীন বাড়ির খুটি উপড়ে ফেলেছে সেনাবাহিনী

0
0

সিএইচটিনিউজ.কম
Manikchariমানিকছড়ি প্রতিনিধি : খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলার বক্রি পাড়ায় কিরণজয় চাকমা(৫৫) নিজ ভোগদখলীয় জমির উপর বাড়ি তৈরি করতে গেলে সেনাবাহিনী ও  সেটলাররা বাধা দিয়েছে এবং বাড়ি তৈরির জন্য বসানো খুটিগুলো উপড়ে ফেলেছে। রবিবার (১৭ মে) সকালে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, রবিবার সকাল ৮টার দিকে কিরণ জয় চাকমা নিজ ভোগদখলীয় জমির উপর বাড়ি তুলতে যান। তিনি বাড়ি তৈরির জন্য খুটি বসান। এর কিছুক্ষণ পর গচ্ছাবিল গ্রামের সেটলার মো: ইউসুফ লিডার (৬৫) সেখানে উপস্থিত হয়ে ওই জায়গাটি তার বলে দাবি করতে থাকে এবং ঘর তৈরিতে বাধা দেয়। পরে মানিকছড়ি সাব-জোন থেকে একদল সেনাবাহিনী সেখানে গিয়ে কিরণ জয় চাকমার বসানো খুটিগুলো উপড়ে ফেলে দেয় এবং বেশ কতক্ষণ পর্যন্ত সেখানে অবস্থান করার পর ক্যাম্পে ফিরে যায়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কিরণ জয় চাকমা বাপ-দাদার আমল থেকে উক্ত জায়গায় বসতি স্থাপন করে ভোগদখল করে আসছেন। তারা কাপ্তাই বাঁধের ফলে উদ্বাস্তু হয়ে সেখানে বসতি গড়ে জায়গাটি আবাদযোগ্য করে তুলেছেন। কিন্তু যুগ যুগ ধরে বসবাস করে আসলেও সেনাবাহিনী যেভাবে তার জায়গাটি বেদখল করার জন্য সেটলারদের সহযোগিতা দিচ্ছে তাতে মনে হয় কিরণ জয় চাকমাদের আবারো নিজ বসতভিটা থেকে উচ্ছেদ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

ওই এলাকার এক ব্যক্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে যতদিন সেনাবাহিনীর দখলদারিত্ব বজায় থাকবে ততদিন পাহাড়িদের কপালে দুঃখ লেগেই থাকবে। তারা যা ইচ্ছা তা করতে পারে। সেনাদের দাপটের কাছে পাহাড়িরাতো অসহায়। পাহাড়ে তারাই তো সর্বেসর্বা!
——————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.