মানিকছড়িতে বাক প্রতিবন্ধী পাহাড়ি কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা, ১০ হাজার টাকায় মীমাংসা !

0
3

সিএইচটিনিউজ.কম
খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলার বাটনাতলী ইউনিয়নের ছদুরখীল গ্রামে ষোল Manikchariবছর বয়সী বাক প্রতিবন্ধী পাহাড়ি কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে প্রতিবেশী ৩ সন্তানের জনক মো: শাহা আলম (৪৫) নামের এক ব্যক্তি। গত মঙ্গলবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকালে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় বুধবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ছদুরখীল তেতুল তলায় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে বাটনাতলী ইউপি চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম মোহন-এর আদালতে এক সালিশ বৈঠকে ১০ হাজার টাকা জরিমানার বিনিময়ে মীমাংসা করে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টায় ছুদুরখীল খাড়িছড়া নিজ বাড়ির উঠানে মারমা জাতিসত্তার ওই প্রতিবন্ধী  কিশোরী রান্না কাজ করছিলেন। এ সময় হঠাৎ করে মোঃ শাহা আলম (৪৫) পিছন দিক থেকে এসে ওই কিশোরীকে ঝাপটে ধরে টেনে হিঁচড়ে ঘরের ভিতরে নিয়ে যায় এবং জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায় । এ সময় ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে কিশোরীর আত্মচিৎকার শুনে তার ছোট ভাই হ্লাচাই মারমা ও পাইসাচিং মারমা ছুটে আসলে লম্পট শাহা আলম পালিয়ে যায়। এ ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে পাহাড়ি-বাঙালিদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করতে থাকে। পরে ঘটনাটি জনপ্রতিনিধি, এলাকার কার্বারী, মুরুবী ও সর্দারদের জানানো হলে বাটনাতলী ইউপি চেয়ারম্যান সামাজিক সালিশের উদ্যোগ গ্রহণ করে।

এ বিষয়ে বাটনাতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম মোহন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ধর্ষণের চেষ্টাকারীকে মুসলেকা নিয়ে সামাজিক বিচারে শাস্তিমূলক বেত্রাঘাত করার পর ১০ হাজার টাকা জরিমানা সাপেক্ষে একপর্যায়ে ফয়সালা করা হয়েছে।
—————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.