রাঙামাটিতে বিকাল ৫টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল, গণগ্রেফতার, পুলিশের গুলি

0
1

সিএইচটিনিউজ.কম
রাঙামাRangamati Karfewটিতে জারি করা কারফিউ সোমবার (১২ জানুয়ারি) বিকেল ৫ টা পর্যন্ত শিথিল করা হয়েছে। এর আগে সকাল থেকে ১১ টা পর্যন্ত শিথিল করার পর আবার কারফিউ বলবৎ করা হয়।

কিন্তু পরে আবার মানুষের অসুবিধার কথা বিবেচনা করে দুপুর বারোটা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত তা শিথিল করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে এবং বিকেল ৫ টার পর আবার কারফিউ শুরু হয়ে মঙ্গলবার সকাল ৭টা পর্যন্ত বলবৎ থাকবে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

এদিকে রবিবার কারফিউ’র রাতে পার্বত্য শহর রাঙামাটিতে গণগ্রেফতার অভিযান চালিয়েছে আইনশৃংখলাবাহিনী। এসময় সন্দেহভাজন এবং রাস্তায় যাকেই পেয়েছে তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে কারফিউ অমান্য করার অভিযোগে সান্ধ্য আইনে মামলা দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছেন তারা।

একই সময় রাতে অন্তত: ৮০ রাউন্ড গুলি ছুড়েছে পুলিশ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এবং জড়ো হওয়া মানুষকে ছত্রভঙ্গ করতে এই গুলি ছোড়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে গুলিতে কেউ হতাহত হয়নি বলেও নিশ্চিত হওয়া গেছে। একই সময় কয়েক রাউন্ড গ্যাসগানও ব্যবহার করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রবিবার রাতে যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে এর মধ্যে যাদের নাম জানা গেছে, তারা হলেন-রেন্টু চাকমা,রাজন, মাহবুব, আব্দুল গণি, জেবুল হোসেন, সোহেল, রুবেল মিয়া, সজল বড়ুয়া, সুকুমার বড়ুয়া,মো: ভূট্টো, আকতার হোসেন, ডালিম বড়ুয়া, শহীদুল ইসলাম, ইসমাইল, জামাল হোসেন, টিপু, হারুন রশীদ, আব্দুর রহমান, মিন্টু দাশ, আরাফাত,ওয়াসিম,ফজল করিম,কল্প চাকমা,নিরজ্ঞিত চাকমা,রতন দে,জাহাঙ্গীর,আব্বাস, মো: হানিফ, বিপ্লব চাকমা,সুকুমার ঋষি, আজিজুল হক, সন্দীপ চাকমা, আব্দুস শুক্কুর, সাইদুল ইসলাম এবং মো: রিয়াজ।

এছাড়াও আরো বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে, আইনী প্রক্রিয়া শেষ না হওয়ায় তাদের নাম জানায়নি পুলিশ।

কোতয়ালি থানার দ্বিতীয় কর্মকর্তা মো: শাহ আলম জানিয়েছেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে কোন আইনে কি পদক্ষেপ নেয়া হবে তার সিদ্ধান্ত উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা দিবেন।

তথ্য সূত্র: সিএইচটি টুডে
—————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.