রামগড়ের হাফছড়িতে সেনাদের গুলি, জনমনে আতঙ্ক

0
0

সিএইচটি নিউজ ডটকম
রামগড় ॥ খাগড়াছড়ির রামগড়ে ভূমি বেদখলের বিরুদ্ধে জনগণের সংগঠিত প্রতিরোধের প্রেক্ষাপটে আজ সোমবার (১৭ আগস্ট) সেনাবাহিনীর সদস্যরা রামগড়ের হাফছড়িতে গিয়ে শুন্যাকাশে গুলি করে জনমনে ভীতির সঞ্চার করে বলে এলাকাবাসীর সুত্রে জানা গেছে।

Ramgarhতারা জানায়, আজ সকাল ৬টায় সিন্দুকছড়ি জোন থেকে একদল সেনা সদস্য হাফছড়িতে সাধন চাকমার জমিতে যায়। এরপর সকাল ১০ টার দিকে তারা শুন্যের দিকে ১০/১৫ রাউন্ড ফায়ার করলে এতে পাহাড়িদের মধ্যে ভাতি ও আতংক সৃষ্টি হয়।

সেনারা এলাকায় দায়িত্বরত ইউপিডিএফ সদস্যদের ব্যাপারেও লোকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বলে জানা যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক গ্রামবাসী সিএইচটি নিউজ ডটকমকে জানান: ‘প্রথমে দুই গার্ড়ি ও পরে আরো দুই গাড়ি আর্মি আসে। তারপর তারা ব্ল্যাংক ফায়ার করে। অবশ্য বেলা ১ টার দিকে তারা ক্যাম্পে ফিরে যায়।’

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে সেনারা সেটলারদের দিয়ে সাধন চাকমার ৬ এবর পাহাড়ি জমি বেদখলের চেষ্টা চালিয়েছিল। তবে জনগণের প্রতিবাদের মুখে তাদের সে চেষ্টা ব্যর্থ হয়।

এরপর থেকে সেনারা এলাকায় লোকজনের উপর হয়রানি ও নির্যাতন বাড়িয়ে দেয়। তারা নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিসহ বেশ কয়েকজনকে ধরে ক্যাম্পে নিয়ে গিয়ে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালায়।

সেনারা প্রায় প্রতিদিন পাহাড়িদের গ্রামে গিয়ে টহলের নামে জনগণের মধ্যে ভীতি ও আতংক সৃষ্টির চেষ্টা চালাচ্ছে।

ভূমি বেদখলের বিরুদ্ধে যাতে জনগণ সংগঠিত হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে না পারে সে লক্ষ্যে সেনারা এলাকায় ভয় ও আতঙ্ক সৃষ্টি করছে বলে অভিজ্ঞমহলের ধারণা। তারা ও এলাকাবাসী অবিলম্বে এলাকায় ভূমি বেদখল ও সেনাবাহিনীর নির্যাতন হয়রানি বন্ধের দাবি জানান।
——————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.