মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
সংবাদ শিরোনাম

লংগদুতে সেটলার হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের যথোপযুক্ত ক্ষতিপূরণ ও দোষীদের শাস্তির দাবিতে চট্টগ্রামে বিক্ষোভ

চট্টগ্রাম : রাঙামাটির লংগদুতে সেটলার হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের যথোপুক্ত পুনবার্সন, ক্ষতিপূরণ প্রদান, হামলাকারীদের বিচার-শাস্তি ও ক্ষতিগ্রস্তদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত হয়রানীমূলক মিথ্যা মামলা তুলে নেওয়ার দাবিতে চট্টগ্রামে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম ও বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) চট্টগ্রাম মহানগর শাখা।

ctg,08.08.17
আজ মঙ্গলবার (৮ আগস্ট ২০১৭) বিকাল ৪ টার সময় নগরীর ডিসি হিল হতে একটি মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে প্রেসক্লাব ঘুরে চেরাগী পাহাড় মোড়ে এসে এক প্রতিবাদ সমাবেশে মিলিত হয়। উক্ত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের নগর শাখার সাধারণ সম্পাদক জিকো চাকমা ও সঞ্চালনা করেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের নগর শাখার সাধারণ সম্পাদক সুকৃতি চাকমা। এতে অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও নগর শাখার সভাপতি থুইক্যচিং মারমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের চবি শাখার সাধারণ সম্পাদক রূপন চাকমা ও হিল ইউমেন্স ফেডারেশনের নগর শাখার আহ্বায়ক রিতা চাকমা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ২ জুন রাঙামাটির লংগদুতে পাহাড়িদের তিন শতাধিক ঘরবাড়িতে যে অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর ও লুটপাট হয়েছে সে ঘটনার ক্ষতিগ্রস্তরা এখনো খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে। সরকার ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য যে বরাদ্দ ঘোষণা করেছে তা অত্যন্ত অপ্রতুল ও অপর্যাপ্ত।

বক্তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, পাহাড়িদের ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগকারীরা উল্টো ক্ষতিগ্রস্ত পাহাড়িদের বিরুদ্ধে হয়রানীমূলক মিথ্যা মামলা দিয়েছে। এর চেয়ে অন্যায় অবিচার আর কি হতে পারে!

সমাবেশ থেকে বক্তারা অবিলম্বে ক্ষতিগ্রস্ত পাহাড়িদের যথাযথ ক্ষতিপূরণ প্রদানপূর্বক স্ব স্ব বসতভিটায় পুনর্বাসন, ক্ষতিগ্রস্ত পাহাড়িদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও পাহাড়ি গ্রামে হামলা ও অগ্নিসংযোগের সাথে জড়িত প্রকৃত দোষীদের গ্রেফতার ও উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানান।
————–
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।