শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অগণতান্ত্রিক সার্কুলার প্রত্যাহারের দাবিতে লক্ষ্মীছড়িতে পিসিপি’র বিক্ষোভ

0
0

লক্ষ্মীছড়ি (খাগড়াছড়ি) : ‘পার্বত্য চট্টগ্রামে সরকার-রাষ্ট্রীয় বাহিনীর সকল ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াও’ এই শ্লোগানে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারিকৃত অগণতান্ত্রিক সার্কুলার প্রত্যাহারসহ পিসিপির উত্থাপিত ৮দফা বাস্তবায়নের দাবিতে আজ মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর ২০১৭) লক্ষ্মীছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) লক্ষ্মীছড়ি থানা শাখা।

পিসিপি’র মিছিলকে ঘিরে সকাল থেকে সেনাবাহিনী ও পুলিশ লাঠিসোটা হাতে উপজেলা সদরের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেয় এবং টহল জোরদার করে আতঙ্ক সৃষ্টির চেষ্টা চালায় বলে পিসিপি অভিযোগ করেছে।

মঙ্গলবার দুপুর ১টায় দেওয়ানপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয় সামনে থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে মাস্টার পাড়া ঘুরে আবার দেওয়ান পাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয় বটতলায় গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হয়। এতে বক্তব্য রাখেন পিসিপি খাগড়াছড়ি জেলা শাথার তথ্য প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শুভাশীষ চাকমা ও লক্ষ্মীছড়ি থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক নয়ন চাকমা। এছাড়া মিছিল ও সমাবেশে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের লক্ষ্মীছড়ি থানা শাখার সভাপতি রেশমি মারমা ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের লক্ষ্মীছড়ি থানা শাখার সভাপতি রিপন চাকমা উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন, সরকার-রাষ্ট্রীয় বাহিনী পার্বত্য চট্টগ্রামে গণতান্ত্রিক পরিবেশকে রুদ্ধ করে ছাত্র-যুব-নারী সমাজসহ নিপীড়িত জনগণের মত প্রকাশের স্বাধীনতার উপর নগ্ন হস্তক্ষেপ করছে। প্রতিনিয়ত একের পর এক ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের সে সকল অন্যায়ের বিরুদ্ধে কেউ যাতে প্রতিবাদ করতে না পারে সেজন্য মিছিল-মিটিঙ, সভা-সমাবেশে বাধা দেওয়া হচ্ছে।

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, আজকে পিসিপি’র শান্তিপূর্ণ মিছিল ও সমাবেশ বানচাল করার জন্য সকাল থেকে সেনা-পুলিশ লাঠি সোটা নিয়ে লক্ষ্মীছড়ি বাজার, হাসপাতাল গেইট, শিলাছড়া, কুশিনগর বনবিহার গেইটসহ বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান নিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে। তারা রাষ্ট্রীয় সেনা-প্রশাসনের এহেন কর্মকা-ের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

তারা আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে সরকার ও রাষ্ট্রীয় পেটুয়া বাহিনী কর্তৃক শিক্ষার্থীরা হত্যা, নির্যাতন, হুমকিসহ নানানভাবে হয়রানির শিকার হচ্ছে। সম্প্রতি মানিকছড়ি কলেজ, গুইমারাসহ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ছাত্রদের আটকের চেষ্টা করা হয়েছে। ফলে শিক্ষার্থীরা নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে রয়েছে।

বক্তারা সেনা-প্রশাসনের সকল ষড়যন্ত্রের ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলে নিজেদের নিরাপত্তাসহ ন্যায্য দাবি আদায়ের লক্ষ্যে আন্দোলন জোরদার করার জন্য ছাত্র সমাজের প্রতি আহ্বান জানান।

সমাবেশ থেকে বক্তারা পার্বত্য চট্টগ্রামে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সেনা-প্রশাসনের নজরদারী বন্ধ ও গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করা এবং ন্যান্যচর কলেজের বিরুদ্ধে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জারিকৃত অগণতান্ত্রিক সার্কুলার প্রত্যাহারসহ পিসিপি’র উত্থাপিত ৮ দফা বাস্তবায়নের দাবি জানান।
—————-
সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.