বুধবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০১৯
সংবাদ শিরোনাম

 সেনাবাহিনী কর্তৃক লক্ষ্মীনারায়ণ মন্দির ভাংচুরের প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে মানববন্ধন

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ॥ নুনছড়ির দেবতা পুকুর এলাকায় সেনাবাহিনী কর্তৃক লক্ষীনারায়ণ মন্দির ভাংচুরের প্রতিবাদ জানিয়ে খাগড়াছড়ি জেলা শহরে মানববন্ধন করেছে ঐ এলাকার সনাতন ধর্মাবলম্বী ত্রিপুরা সম্প্রদায়ের লোকজন।

আজ বৃহস্পতিবার (১৩ ডিসেম্বর ২০১৮) শহরের শাপলা চত্বরে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তারা এই মানববন্ধন করেন। এতে এলাকাবাসীর পক্ষে ধনে ত্রিপুরা বক্তব্য রাখেন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, দেবতা পুকুর এলাকায় ৮টি গ্রামের সনাতন ধর্মাবলম্বীরা ধর্ম প্রতিপালনের জন্য তিন মাস আগে লক্ষীনারায়ণ মন্দির নির্মাণের পর থেকে সেনাবাহিনী মন্দির ভেঙ্গে ফেলার হুমকি, এলাকার লোকজনকে মারধর, মন্দির কমিটির সদস্য রকিন্দ্র ত্রিপুরাকে অন্যায়ভাবে আটক করে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে জেলে প্রেরণ করা হয়েছে। এমনকি প্রশাসনকে দিয়ে গত ৫ ডিসেম্বর মন্দির এলাকায় অন্যায়ভাবে ১৪৪ ধারা জারি করে ১০ ডিসেম্বর রাতের অন্ধকারে সেনাবাহিনী মন্দিরটি ভাংচুর করেছে। এর আগে মন্দিরে রাখা মূর্তিটি তারা লূট করে নিয়ে গেছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন। মন্দির পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দের নামেও মিথ্যা হয়রানিমূলক মামলা দেওয়া হচ্ছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, এমতাবস্থায় বর্তমানে এলাকার লোকজন মন্দিরে কোনপ্রকার ধর্মীয় কাজকর্ম করতে পারছেন না।

তিনি মন্দির থেকে সকল নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে ধর্ম পালনের স্বাধীনতা নিশ্চিত করার দাবি জানান। মানববন্ধন থেকে মন্দির এলাকায় জারি করা অন্যায় ১৪৪ ধারা তুলে নেয়ারও দাবি জানানো হয়।

মানববন্ধন শেষে তারা এমপি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার কাছে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন।

স্মারকলিপিত তারা মন্দির ভাংচুরের সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা; ধর্ম প্রতিপালনের জন্য দেবতাপুকুরের উক্ত জায়গায় লক্ষীনারায়ণ মন্দির পুনঃপ্রতিষ্ঠা করে দেওয়া ও জনগণের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা তুলে নেওয়ার দাবি জানান।
—————–
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.