সেনা মদদে ‘সন্ত্রাসী বাহিনী’ সৃষ্টির প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে দিনব্যাপী সড়ক অবরোধ পালিত

0
0

খাগড়াছড়ি : পার্বত্য চট্টগ্রামে জুম্ম ধ্বংসের সুদূরপ্রসারী নীলনকশা অনুযায়ী সেনাবাহিনীর প্রত্যক্ষ মদদে ‘নব্য মুখোশ বাহিনী’ তথা সন্ত্রাসী বাহিনী সৃষ্টির প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর ২০১৭) মাদক-সন্ত্রাস ও দুর্বৃত্ত প্রতিরোধ কমিটির ডাকে খাগড়াছড়িতে দিনব্যাপী  শান্তিপূর্ণভাবে সড়ক অবরোধ পালিত হয়েছে।

সড়ক অবরোধ সফল করতে লড়াকু ছাত্র-জনতা সকাল থেকে জেলা শহরসহ জেলার বিভিন্নস্থানে রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে পিকেটিং করেছে। অবরোধের কারণে জেলা শহর ও উপজেলাগুলো থেকে দূরপাল্লার সকল যান চলাচল বন্ধ ছিল।

অবরোধ সফলভাবে সম্পন্ন করতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে সকল প্রকার সহযোগিতা দেয়ার জন্য মাদক-সন্ত্রাস ও দুর্বৃত্ত প্রতিরোধ কমিটি এলাকার জনগণসহ সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়েছে।

কমিটির পক্ষ থেকে হুঁশিয়ারী দিয়ে বলা হয়, জনগণের বৃহত্তর স্বার্থ বিকিয়ে দিয়ে ও জনগণের সাথে বেঈমানী করে জুম্ম ধ্বংসের সেনা সরকারী এজেন্ডা বাস্তবায়ন করার প্রচেষ্টা জনগণ মেনে নেবে না। পার্বত্য জুম্ম জনগণের বিরুদ্ধে যেকোনো কায়েমী স্বার্থবাদী তৎপরতা গণআন্দোলন সৃষ্টির মাধ্যমে প্রতিরোধ করা হবে।

কমিটির পক্ষ থেকে আরো বলা হয়, পার্বত্য চট্টগ্রামের অধিকার আদায়ের লড়াইকে ভিন্নভাবে চিত্রিত করার প্রচেষ্টা দীর্ঘদিন ধরে সেনাবাহিনী ও সরকার করে যাচ্ছে। এই ষড়যন্ত্র সফল হতে না পেরে সেনা ও সরকার এখন কোনো রাখঢাক না রেখে, কোনো ধরণের আইন কানুনের তোয়াক্কা না করে সমাজের অধঃপতিত, সন্ত্রাসী, দুর্বৃত্তদের ব্যবহার করে ‘নব্য মুখোশ বাহিনী’ সৃষ্টি করার কাজে হাত দিয়েছে। জুম্ম জনগণের অধিকার আদায়ের লড়াইকে ধ্বংস করতে সরকারের এই প্রচেষ্টা পার্বত্য জুম্ম জনতা ও দেশবাসী কোনোভাবেই মেনে নেবে না। ‘নব্য মুখোশ বাহিনী’কে পৃষ্ঠপোষকতা দেয়ার ষড়যন্ত্রমূলক কাজ থেকে বিরত না হলে পার্বত্য জনগণ তীব্রভাবে প্রতিরোধ করবে বলে কমিটির পক্ষ থেকে হুশিয়ারী প্রদান করা হয়।

কমিটির পক্ষ থেকে বলা হয়, পার্বত্যবাসী ৯০ দশকে সেনাসৃষ্ট মুখোশ বাহিনী, গপ্রক বাহিনী ও ২০০৯ সালে বোরকা বাহিনীকে উৎখাত করতে জনতার প্রতিরোধ সংগ্রাম সংঘটিত করেছিল। ঠিক তেমনিভাবে এইবারও যারা জনগণের বিরুদ্ধে কাজ করবে, সরকার সেনাবাহিনীর দালাল-লেজুড়বৃত্তি করে জাতীর বৃহত্তর স্বার্থকে বিকিয়ে দেবে তাদেরকে জনগণ ক্ষমা করবে না, তাদের ধ্বংস অনিবার্য। জনগণ তাদেরকে প্রতিহত করবে।

কমিটি আজ সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সড়ক অবরোধে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণের মাধ্যমে সফল করার জন্য জেলার সকল যান মালিক সমিতি, সকল ধরণের যানবাহন সমিতি -শ্রমিক সংগঠন ও জেলাবাসীদের প্রতি ধন্যবাদ জানিয়েছে।

অবরোধ শান্তিপূর্ণভাবে সফল করতে সহযোগীতা করার জন্য জেলার স্থানীয় জেলা প্রশাসনের প্রতিও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছে মাদক সন্ত্রাস ও দর্বৃত্ত প্রতিরোধ কমিটি।

কমিটি’র সদস্য ও পাহাড়ি ছাত্র পরিষদে খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অমল ত্রিপুরা স্বাক্ষরিত সংবাদ মাধ্যমে প্রেরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার সেনা পুলিশের প্রহরায় কতিপয় দাগী আসামী, অস্ত্র চোরাকারবারী, সমাজ ও দলচ্যুত ব্যক্তিকে দিয়ে খাগড়াছড়িতে সংবাদ সম্মেলন করে একটি সন্ত্রাসী বাহিনী সৃষ্টি করা হয়। সেনাবাহিনীর এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে গতকাল খাগড়াছড়ি জেলা শহরে মাদক-সন্ত্রাস ও দুর্বৃত্ত প্রতিরোধ কমিটির ব্যানারে আয়োজিত লাঠি মিছিল ও সমাবেশ থেকে এই অবরোধ কর্মসূচির ঘোষণা দেওয়া হয়।।

—————
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.