“অধিকার” সম্পাদকের মুক্তির দাবি জানিয়ে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের বিবৃতি

0
1
ডেস্ক রিপোর্ট
সিএইচটিনিউজ.কম
ঢাকা: বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি সামিউল আলম ও সাধারণ সম্পাদক মিনহাজ আহমেদ আজ রবিবার এক বিবৃতিতে ১০ অগাস্ট রাতে মানবাধিকার সংস্থা ‘অধিকারের’ সেক্রেটারি আদিলুর রহমান শুভ্র কে এক মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।
গত ৫ মে রাজধানীর শাপলা চত্তরে হেফাজতে ইসলামের অবস্থানের উপর সরকারের বর্বোরচিত হত্যাকাণ্ডের একটি সচিত্র প্রতিবেদন ‘অধিকার’ গত ১০ মে প্রকাশ করলে সরকারের পক্ষ হতে সংস্থাটির উপর চাপ সৃষ্টি করা হয়। এরই প্রেক্ষিতে সরকার অত্যন্ত নগ্ন ভাবে তাঁর ফ্যাসিবাদী চেহারা জনগণের সামনে উন্মোচন করে আদিলুর রহমান কে গ্রেফতার করেছে বলে নেতৃবৃন্দ দাবি করেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, ৬ মে সকালে শাপলা চত্তর এলাকায় বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের এক অনুসন্ধানে হত্যাকণ্ডের অনেক আলামত চোখে ধরা পড়ে। সেই হিসেবে ‘অধিকার’ তার প্রতিবেদনে ৬১ জন হত্যার যে প্রতিবেদন উপস্থাপন করেছে তা আমদের কাছে গ্রহণযোগ্য বলে বিবেচিত হচ্ছে। কিন্তু সরকার কোন হতাহত হয়নি বলে যে প্রচারণা চালাচ্ছে তাকে গায়ের জোরে প্রতিষ্ঠা করার জন্যে বিরুদ্ধ মাতামতের সকল উসের গলা টিপে ধরেছে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, অত্যন্ত ন্যাক্কারজনক ভাবে সরকার সমর্থিত সংবাদমাধ্যম ‘বিডিনিউস ২৪ডট কম’ আদিলুর রহমান কে হেফাজত ও জামায়াতপন্থী হিসেবে উপস্থাপন করছে। সরকার তার প্রচার মাধ্যম দ্বারা সরকারের বিরুদ্ধ মতামতকে উগ্র ডানপন্থী শিবিরে ঠেলে দিয়ে রাজনৈতিক সুবিধা আদায়ে সবসময় তপর রয়েছে। কিন্তু ‘অধিকারের’ সঙ্গে পরিচত জনেরা জানেন ‘অধিকার’ গত ১৭ বছর ধরে মানবাধিকার বিষয়ে বস্তুনিষ্ঠ প্রতিবেদন প্রকাশ করছে। যার মধ্যে পূর্ব বাংলা কমিউনিস্ট পার্টি নেতা মিজানুর রহমান টুটুল হত্যাকাণ্ড, বাংলাদেশ সিমান্তে বিএসএফ এর হত্যাকাণ্ড, র‌্যাবের ক্রসফায়ারে হত্যাকাণ্ড, বিডিয়ার পিলখানায় হত্যাকাণ্ড প্রভৃতি। আর আদিলুর রহমান শুভ্র ৯০এর স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন হতে শুরু করে দেশের প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামে সক্রিয় ভূমিকা পালনকারী হিসেবে সকলের কাছেই পরিচিত। কাজেই সরকার আদিলুর রহমানকে ডানপন্থী হিসেবে যে প্রচারণা চালাচ্ছে তা দূরভিসন্ধি মূলক।
নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার তাঁর ৫ বছর মেয়াদে বিনাবিচারে মানুষ হত্যার দায়ে এক খুনি সরকার হিসেবে সকলের কাছে বিবেচিত হচ্ছে। এমনকি সরাকর তাঁর দলীয় লোকজনকে বিচারের আওতায় না এনে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করছে। সরাকারী সভা-সমাবেশ ব্যতীত সকল সভা-সমাবেশেই সরকার বাধা প্রদান করছে। কাজেই ‘অধিকারের’ উপর যে হামলা সরকার চালিয়েছে তা সরকারের দমন-পীড়নের অংশ হিসেবে করা হয়েছে। নিতৃবৃন্দ অবিলম্বে ‘অধিকার’ সেক্রেটারি ‘আদিলুর রহমান শুভ্রকে’ মুক্তি দেওয়ার জোর দাবি জানান।
বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক সাজ্জাদ সুমনের স্বাক্ষরে এ বিবৃতি প্রদান করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.