আইসিআইপি-সিএইচটি রাঙামাটি হামলার নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি জানিয়েছে

0
5

ডেস্ক রিপোর্ট
সিএইচটিনিউজ.কম
 ইন্টারন্যাশন্যাল কাউন্সিল ফর দ্যা ইন্ডিজিনাস পিপলস অব সিএইচটি (আইসিআইপি-সিএইচটি) ২২ – ২৩ সেপ্টেম্বর রাঙামাটিতে পাহাড়িদের ওপর সেটলার হামলার নিরপেক্ষ তদন্ত ও দোষীদের শাস্তি দাবি করেছে।
গত ২ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে লেখা এক চিঠিতে সংগঠনটির প্রধান ড. আদিত্য কুমার দেওয়ান এই দাবি জানান।
রাঙামাটি হামলার ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়ে তিনি বলেন, ২২ সেপ্টেম্বর শুরু হওয়া ওই হামলায় কমপক্ষে ৪০ জন পাহাড়ি ছাত্র, একজন সরকারী পাহাড়ি চিকিসক, ১২ জন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং রাঙামাটি কলেজের দুই জন পাহাড়ি শিক্ষক আহত হয়েছেন। বাঙালি সেটলাররা পাহাড়িদের দোকান, বাড়িঘর ও ক্লিনিকে নির্বিচারে হামলা, ভাঙচুর চালায় ও আগুন লাগিয়ে দেয়। এমনকি লংগুদু ও চট্টগ্রাম শহরের মতো দূরবর্তী এলাকায়ও পাহাড়িদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, ১৯৭০ দশকের শেষ দিক থেকে শুরু হওয়া অব্যাহত সহিংসতার সাম্প্রতিক সংযোজন হলো বাঙালি সেটলার কর্তৃক রাঙামাটিতে পাহাড়িদের ওপর হামলা। যেহেতু বাংলাদেশ সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামে সহিংসতার কাঠামোগত ভিত্তি দূর করেনি তাই আমাদের আশঙ্কা রাঙামাটির এই হামলা শেষ হামলা হবে না
তিনি বলেন, এই কাঠামোগত কারণসমূহের মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়িদেরকে নিজ জমি থেকে উচ্ছেদের লক্ষ্যে বাঙালিদের বসতিস্থাপন। আর এই বাঙালি সেটলাররা তাদের উক্ত লক্ষ্য পূরণের জন্য সময়ে সময়ে এ ধরনের আক্রমণ সংঘটিত করে থাকে
প্রধানমন্ত্রীর কাছে লেখা উক্ত চিঠিতে তিনি ৫ দফা দাবি তুলে ধরেন। দাবিগুলো হলো নিরাপত্তা বাহিনীর নিরপেক্ষ ভূমিকা, রাঙামাটি হামলার নিরপেক্ষ তদন্ত, সহিংসতায় ক্ষতিগ্রস্তদের যথাযথ ক্ষতিপূরণ, বেসামরিকরণ, ভূমি অধিকার ও পুলিশী ক্ষমতার হস্তান্তরসহ চুক্তির পূর্ণবাস্তবায়ন এবং সেটলারদের পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে সরিয়ে নেয়া।
——————-
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.