আগামীকাল (শুক্রবার) শাহবাগে ধর্ষণবিরোধী গণসমাবেশ

0
65

ঢাকা ।। ‘পাহাড় ও সমতলে অব্যাহত ধর্ষণ-নিপীড়ন এবং তার মদদদাতাদের রাজনৈতিকভাবে প্রতিহত করুন’ এই আহ্বানে ও ৯ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে আগামীকাল শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১) বিকাল ৩টায় শাহবাগে ধর্ষণবিরোধী গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

প্রগতিশীল ছাত্র, যুব ও নারী সংগঠনসমূহের প্লাটফর্ম ‌‌‘ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ’ এই গণসমাবেশ আহ্বান করেছে।

গত ০৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে ধর্ষণবিরোধী এই গণসমাবেশ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

উক্ত গণসমাবেশে অংশগ্রহণ করে ধর্ষণ-নিপীড়ন ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে আন্দোলন জোরদার করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছর ৯ অক্টোবর ধর্ষণ-নিপীড়ন বিরোধী এক মহাসমাবেশ থেকে তারা ৯ দফা দাবি উত্থাপন করেন। তাদের ৯ দফা দাবি হচ্ছে-

১। সারাদেশে অব্যাহতভাবে ধর্ষণ ও নারীর প্রতি সহিংসতার সাথে যুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। ধর্ষণ, নিপীড়ন বন্ধ ও বিচারে ব্যর্থ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে অবিলম্বে অপসারণ করতে হবে।

২। পাহাড়-সমতলে আদিবাসী নারীদের ওপর সামরিক-বেসামরিক সকল প্রকার যৌন ও সামাজিক নিপীড়ন বন্ধ করতে হবে।

৩। হাইকোর্টের নির্দেশানুযায়ী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সরকারি, বেসরকারি সকল প্রতিষ্ঠানে নারী নির্যাতন বিরোধী সেল কার্যকর করতে হবে। সিডো সনদের পূর্ণ বাস্তবায়ন করতে হবে। নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক সকল আইন ও প্রথা বিলোপ করতে হবে।

৪। ধর্ষণ মামলার ক্ষেত্রে সাক্ষ্য আইন ১৮৭২-১৫৫ (৪) ধারাকে বিলোপ করতে হবে এবং মামলার ডিএনএ আইনকে সাক্ষ্য প্রমাণের ক্ষেত্রে কার্যকর করতে হবে।

৫। অপরাধ বিজ্ঞান ও জেন্ডার বিশেষজ্ঞদের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। ট্রাইবুনালের সংখ্যা বাড়িয়ে অনিষ্পন্ন সকল মামলা দ্রুত নিষ্পন্ন করতে হবে।

৬। তদন্তকালীন সময়ে ভিকটিমকে মানসিক নিপীড়ন-হয়রানি বন্ধ করতে হবে। ভিকটিমের আইনগত ও সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

৭। ধর্মীয়সহ সকল ধরণের সভা-সমাবেশে নারী বিরোধী বক্তব্য শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে গণ্য করতে হবে। সাহিত্য, নাটক, সিনেমা, বিজ্ঞাপনে নারীকে পণ্য হিসেবে উপস্থাপন বন্ধ করতে হবে। পর্ণোগ্রাফি বন্ধে বিটিআরসি’র কার্যকর ভূমিকা পালন করতে হবে। মাদকব্যবসার হোতাদের গ্রেফতার করতে হবে, মাদকাসক্তি বন্ধে কার্যকর উদ্যোগ নিতে হবে। সুস্থ ধারার সাংস্কৃতিক চর্চায় সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা করতে হবে।

৮। পাঠ্যপুস্তকে নারীর প্রতি অবমাননা ও বৈষম্যমূলক যে কোন প্রবন্ধ, নিবন্ধ, পরিচ্ছদ, ছবি, নির্দেশনা ও শব্দ চয়ন পরিহার করতে হবে।

৯। গ্রামীন সালিশের মাধ্যমে ধর্ষণের অভিযোগ ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টাকে অপরাধ হিসেবে গণ্য করতে হবে।

 


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.