আগামীকাল সোমবার বাবুছড়া পরিদর্শনে যাবে সংসদীয় প্রতিনিধি দল

0
0

সিএইচটিনিউজ.কম
Songsod bhobonখাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার বাবুছড়ায় বিজিবি’র ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তর স্থাপনের জন্য জমি অধিগ্রহণকে কেন্দ্র করে স্থানীয় পাহাড়ি অধিবাসীদের সাথে যে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে তা সরেজমিন পরিদর্শন এবং এতদসংশ্লিষ্ট সকলের সাথে মতবিনিময়ের জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি’র নেতৃত্বে সংসদীয় একটি প্রতিনিধি দল আগামী ১৪ ও ১৫ জুলাই দু’দিন খাগড়াছড়ি সফর করবেন। প্রতিনিধি দলটি আগামীকাল ১৪ জুলাই সোমবার দীঘিনালার বাবুছড়া পরিদর্শনে যাবেন।

প্রতিনিধি দলের অন্যান্য সদস্যরা হলেন- আদিবাসী বিষয়ক সংসদীয় ককাসের আ্হ্বায়ক ফজলে হোসেন বাদশা এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল লতিফ এমপি, খাগড়াছড়ির সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি, আদিবাসী বিষয়ক ককাসের সদস্য নাজমুল হক প্রধান এমপি, ইয়াছিন আলী এমপি ও আদিবাসী বিষয়ক ককাসের টেকনিক্যাল কমিটির সদস্য জান্নাত-এ-ফেরদৌসী। এছাড়া রাঙামাটি থেকে মহিলা এমপি ফিরোজা বেগম চিনু প্রতিনিধি দলের সাথে যুক্ত হওয়ার কথা রয়েছে।

কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী প্রতিনিধি দলটি আগামীকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৮টায় ঢাকা থেকে ফ্লাইটযোগে চট্টগ্রাম বিমানবন্দর ও দুপুর ১টায় চট্টগ্রাম থেকে খাগড়াছড়ি পৌঁছবেন। এরপর তারা জেলা প্রশাসনের সাথে বৈঠকে মিলিত হবেন। মধ্যাহ্ন বিরতির পর বিকাল ৩টায় প্রতিনিধি দলটি খাগড়াছড়ি থেকে বাবুছড়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেবেন এবং তদন্ত সম্পন্ন করে সন্ধ্যায় খাগড়াছড়ি ফিরে আসবেন। এরপর সন্ধ্যা ৭টায় পুলিশ সুপার ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করবেন।

মঙ্গলবার সকাল ৯টায় প্রতিনিধি দলটি বিজিবি কমান্ডারদের সাথে পৃথক বৈঠক করবেন এবং সকাল ১০টায় খাগড়াছড়ি ব্রিগেড কমান্ডারের সাথে বৈঠকের পর সকাল ১১টায় চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে খাগড়াছড়ি ত্যাগ করবেন।

উল্লেখ্য, গত ১০ জুন বিজিবি ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তর স্থাপনকে কেন্দ্র করে স্থানীয় পাহাড়ি গ্রামবাসীদের উপর বিজিবি-পুলিশ ও বাঙালি শ্রমিকরা মিলে হামলা চালায়। এতে ১৮ জন পাহাড়ি গ্রামবাসী আহত হয়, যাদের অধিকাংশই নারী। এ ঘটনার পর ২১ পাহাড়ি পরিবার নিজ বসতভিটা থেকে উচ্ছেদের শিকার হয়। তারা বর্তমানে বাবুছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে আশ্রয় নিয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। ঘটনার পর বিজিবি’র দায়ের করা মামলায় পুলিশ ৪ নারীসহ ১০জন পাহাড়ি গ্রামবাসীকে আটক করে। এরমধ্যে ৪ নারীসহ ৬ জন জামিন পেলেও বাকি ৪ জন এখনো কারাগারে আটক রয়েছেন।

এ ঘটনায় ব্যাপক প্রতিবাদ-বিক্ষোভ দেখা দিলে গত ৩ জুলাই পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক আন্তর্জাতিক কমিশন(সিএইচটি কমিশন)-এর একটি প্রতিনিধি দল বাবুছড়া পরিদর্শন করে।
———-

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।

 


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.