আটক নেতা-কর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে খাগড়াছড়িতে পিসিপি’র বিক্ষোভ

0
0

সিএইচটিনিউজ.কম
OLYMPUS DIGITAL CAMERAখাগড়াছড়ি: “ধরপাকড় ও তল্লাশির নামে হয়রানিমূলক রাষ্ট্রীয় ষড়যন্ত্র রুখে দাও ছাত্র সমাজ” এই শ্লোগানে দীঘিনালা ও পানছড়িতে অন্যায়ভাবে আটক পিসিপি নেতা জহেল চাকমা ও গণমিত্র চাকমাকে অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

পিসিপি’র খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির ব্যানারে আজ ১৯ অক্টোবর রবিবার বেলা ২.৩০টার সময় একটি বিক্ষোভ মিছিল স্বনির্ভর থেকে শুরু হয়ে নারানহিয়া, উপজেলা ঘুরে চেঙ্গী স্কোয়ারে গিয়ে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশ করে। এতে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের জেলা কমিটির সদস্য রূপায়ন চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক রতন স্মৃতি চাকমা, গণতান্ত্রিক যুবফোরাম খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির আহ্বায়ক জিকো ত্রিপুরা, হিল উইমেন্স ফেডারেশন জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক রিনা চাকমা প্রমুখ।

সমাবেশে হিল উ্ইমেন্স ফেডারেশন এর জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক রিনা চাকমা বলেন, শাসক শ্রেণী নিজেদের আধিপত্যকে জাহির করার জন্য পার্বত্য চট্টগ্রামে প্রতিনিয়ত নারী-শিশু ধর্ষণ, নির্যাতন সহ নতুন নতুন ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে। এর মাধ্যমে সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামের পরিস্থিতিতে ঘোলাটে করার চেষ্টা করছে। তাই আমাদের আর বসে থাকার সময় নেই। যেখানে নির্যাতন সেখানে প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।

গণতান্ত্রিক যুব ফোরামে জেলা আহ্বায়ক জিকো ত্রিপুরা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে দালাল সন্তু লারমাকে দিয়ে যখন ইউপিডিএফ ও জনগণের ভুমি বেদখলের বিরুদ্ধে গণতান্ত্রিক সংগ্রামকে বাধা ও অন্যায় নিপীড়ন নির্যাতন করার কূটকৌশল খাটানো যাচ্ছে না, তখনি সেনা-প্রশাসন নতুন ষড়যন্ত্র নিয়ে আমাদের সামনে হাজির হয়েছে। এর অংশ হিসেবে গত ১২ অক্টোম্বর গণতান্ত্রিক যুব ফেরোমের পনছড়ি উপজেলা সহ-সভাপতি সুসময় চাকমাকে আটক করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় ১৮ অক্টোম্বর পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের পানছড়ি থানা কমিটির সদস্যও পাইলট স্কুল কমিটির সভাপতি গণমিত্র চাকমাসহ সাধারণ ২ জন ছাত্র ও  আজ ১৯ অক্টোম্বর দিঘীনালা পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের থানা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জহেল চাকমাকে ইউপিডিএফ  অফিস থেকে আটক করা হয়েছে।

পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক রতন স্মৃতি চাকমা বলেন, সংখ্যালঘু সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দূর্গা পূজার সময়ে পানছড়িতে দায়িত্ব পালনের সময় পুলিশের কাছ থেকে ষড়যন্ত্রমূলক অস্ত্র খোয়া যাওয়ার ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে খাগড়ছড়ি জেলার  পানছড়ি, দিঘীনালা উপজেলায় ইউপিডিএফ সহ তার সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে আটক করা হচ্ছে। আমরা মনে করি পুলিশের এই অস্ত্র খোয়া যাওয়ার ঘটনা সম্পর্ণ সাজানো এবং এর মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রামে নতুন ষড়যন্ত্রের জাল বুনছে সরকার।

সমবেশ থেকে বক্তারা অবিলম্বে আটককৃত গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম পানছড়ি থানা কমিটির সহ-সভাপতি সুসময় চাকমা ও পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের পানছড়ি থানা কমিটির সদস্যও পাইলট স্কুল কমিটির সভাপতি গণমিত্র চাকমাসহ সাধারণ ২ জন ছাত্র এবং পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের দিঘীনালা থানা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জহেল চাকমাকে নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচীর হুঁশিয়ারী দেন বক্তারা।
————-

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.