ইউপিডিএফ-এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ঢাকায় আলোচনা সভা

0
3

ঢাকা : ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গতকাল ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮ ঢাকায় ঘরোয়া আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় ইউপিডিএফ-এর সভাপতি প্রসিত খীসা, হিল উইমেন্স ফেডারেশন সভাপতি নিরূপা চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সভাপতি বিপুল চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় নেতা বরুণ চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সাবেক সভাপতি বিনয়ন চাকমাসহ ইউপিডিএফ ও সহযোগী তিন সংগঠনের ঢাকাস্থ নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সভা পরিচালনা করেন ইউপিডিএফ সংগঠক মাইকেল চাকমা। সভা শুরুতে শহীদের সম্মানে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

সভায় প্রসিত খীসা বলেন, ২৬ ডিসেম্বর এমন একটি দিন যে দিনটিতে ইউপিডিএফ প্রতিষ্ঠা লাভ করে পার্বত্য চট্টগ্রামের আন্দোলনের নতুন মেরুকরণ ঘটিয়েছে।

তিনি বলেন স্যারেন্ডার পরাজয়ের চেয়েও খারাপ। আমাদের শ্লোগান হচ্ছে- ‘নো ফুল অটোনমি নো রেস্ট’ ‘পূর্ণস্বায়ত্তশাসন ন’ অ’লে আমি ন’ খিমিবং’ (পূর্ণস্বায়ত্তশাসন ছাড়া আমরা ক্ষান্ত হবো না)।

তিনি আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে বর্তমানে যে পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হয়েছে এক সময় তা থেমে যেতে বাধ্য। ’৯৫ সালেও মুখোশ বাহিনী সৃষ্টি করে আন্দোলন দমনের হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু জনতার প্রতিরোধ সংগ্রামের মুখে মুখোশ বাহিনী ভেঙে দিতে বাধ্য হয়েছে। মুখোশ বাহিনী সৃষ্টির মূল হোতা খাগড়াছড়ি ব্রিগেডের মেজর মেহবুবেরও শাস্তি পেতে হয়েছে, তার চাকরি চলে গেছে। সময় এলে এখন যারা নব্য মুখোশদের মাঠে নামিয়েছে তাদেরও একই পরিণতি ভোগ করতে হবে।

তিনি দৃঢ়তার সাথে বলেন, ‘যে জাতি একবার জেগে উঠেছে তাকে আর ঘুম পাড়িয়ে রাখা যাবে না। পার্বত্য চট্টগ্রামে আমরা নতুন দিন ফিরে আনবোই’।

সভা শেষে বিকেলে শিক্ষণীয় বিভিন্ন ডকুমেন্টারি ফিল্ম প্রদর্শন করা হয়।
—————-
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.