একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে পিসিপি

0
78

ঢাকা।। ‘বীর শহীদদের আত্মত্যাগ নিপীড়িত জনগণের লড়াইয়ের অনুপ্রেরণার উৎস’ এই শ্লোগানে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ঢাকা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)।

আজ রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ প্রথম প্রহর রাত আড়াই টায় পিসিপি’র কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অমল ত্রিপুরার নেতৃত্বে পিসিপি’র নেতৃবৃন্দ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে সালাম, বরকত, রফিক,জব্বার ও শফিউরসহ সকল ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

পুষ্পস্তবক অর্পণ করার শেষে অমল ত্রিপুরা ভাষা শহীদদের সম্মান জানিয়ে মুস্তিবদ্ধ হাতে স্যালুট প্রদান করেন।

পরে সেখানে তিনি পিসিপি’র ঢাকা মহানগর শাখার ফেসবুক পেজে লাইভে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন। এতে তিনি শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও সম্মান জানিয়ে বলেন, ১৯৯৯ সালে ইউনেস্কো ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসবে স্বীকৃতি দেয়ার পর ২০০০ সাল থেকে পিসিপি সকল জাতিসত্তার নিজ নিজ মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা লাভের অধিকার নিশ্চিতসহ শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবি নামা সরকারে নিকট তুলে ধরেছে এবং আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। আন্দোলনের ধারবাহিকতায় তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী এমএন ওসমান ফারুক, প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও পার্বত্য চট্টগ্রামের উপমন্ত্রী মণিস্বপন দেওয়ানের বরবারে স্মারকলিপি পেশ করা হয়। এর পরবর্ততীতে ২০১১ সালে পিসিপি’র ডাকে পার্বত্য চট্টগ্রামের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধর্মঘট কর্মসূচি পালন করা হয় এবং দাবি পুরণ না হলে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দেওয়া হয়।

পরে ২০১৪ সালে বর্তমান ক্ষমতাসীন সরকারে তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ দাবি বাস্তবায়নের ঘোষণা দিতে বাধ্য হয় এবং ২০১৭ সালে সরকার ৫টি জাতিসত্তার মাতৃভাষার (চাকমা, মারমা, ত্রিপুরা, গারো ও সাদ্রী) প্রাক-প্রথমিক শিক্ষার বই তুলে দেয়।

এ সময় তিনি দাবি জানিয়ে বলেন, শুধু ৫টি জাতিসত্তার ভাষা নয়, দেশের সকল জাতিসত্তাসমূহের নিজ নিজ মাতৃভাষায় শিক্ষা লাভের অধিকার নিশ্চিত করাসহ পিসিপি শিক্ষাসংক্রান্ত ৫দফা পূর্ণবাস্তবায়ন করতে হবে। এছাড়া প্রাথমিক শিক্ষকদের নিজ নিজ মাতৃভাষায় যথাযথ প্রশিক্ষণ ও দক্ষ শিক্ষক নিয়োগ করারও দাবি জানান তিনি।

তিনি সকল জাতির ভাষা-সংষ্কৃতি ও ঐতিহ্য রক্ষার্থে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

 


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.