কল্পনা চাকমা’র অপহরণকারীদের বিচারের দাবিতে ঢাকায় হিল উইমেন্স ফেডারেশনের প্রতিবাদ সমাবেশ

0
2

ঢাকা : কল্পনা চাকমাকে অপহরণের সাথে জড়িত লে. ফেরদৌসসহ দোষীদের বিচার ও শাস্তির দাবিতে ঢাকায় শাহবাগে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে হিল উইমেন্স ফেডারেশন। কল্পনা চাকমা অপহরণের ২২তম বার্ষিকী উপলক্ষে এই সমাবেশের আয়োজন করে সংগঠনটি।

আজ শুক্রবার ( ৮ জুন ২০১৮) বিকাল সাড়ে ৩ টায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরুপা চাকমার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক ফয়জুল হাকিম, ইউনাটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ) এর ঢাকা অঞ্চলের সংগঠক প্রতিম চাকমা, নারী সংহতির সাংগঠনিক সম্পাদক জান্নাতুল মরিয়ম, বিপ্লবী নারী ফোরামের আমেনা আক্তার, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি এম এম পারভেজ লেলিন, ছাত্র ঐক্য ফোরামের যুগ্ম আহ্বায়ক সরকার আল ইমরান, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সভাপতি বিনয়ন চাকমা ও ল্যাম্পপোষ্টের সাধারণ সম্পাদক নাহিদ সুলতানা লিসা। এছাড়া সংহতি জানান বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্রের সভাপতি সীমা দত্ত, লেখক রেহনুমা আহমেদ, গবেষক সাইদিয়া গুলরুখ ও ফ্যাসিবাদ ও সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী জাতীয় কমিটির সদস্য রকিব পারভেজ।

সমাবেশে ফয়জুল হাকিম বলেন, ১৯৯৬ সালে কল্পনা অপরহরণের পর বহু প্রতিবাদ-বিক্ষোভ করেছি। কিন্তু কোন সরকার চিহ্নিত অপহরণকারীদের শাস্তি দেয়নি। তিনি বলেন, জনগণের বিরুদ্ধে কোন শক্তি দাঁড়াতে পারে না, এমনকি সেনাবাহিনীও নয়। পার্বত্য চট্টগ্রামে দমন-পীড়নের নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, সেখানে যৌথ অভিযান চলছে, মিথ্যা মামলা দিয়ে ইউপিডিএফ ও তার সহযোগী সংগঠনসমূহের নেতাকর্মীদের ধরপাকড়-মিথ্যা মামলা দেয়া হচ্ছে। তিনি পাহাড়ে স্বরাষ্টমন্ত্রণালয়ের ১১ দফা নির্দেশনা প্রত্যাহারসহ সেনাশাসন বন্ধের দাবি জানান।

নারী সংহতির সাংগঠনিক সম্পাদক জান্নাতুল মরিয়ম বলেন, লে. ফেরদৌসের বিচার কেবল জরুরী নয় তা আবশ্যকও। কল্পনা অপহরণ, তনু হত্যাসহ নারী নির্যাতনের বিচারের দাবিতে আমাদের অব্যাহতভাবে লড়তে হবে। মানুষের সামগ্রিক মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত এ লড়াই থামবে না।

বিপ্লবী নারী ফোরামের আমেনা আক্তার বলেন, কল্পনা চাকমার অপহরণের তদন্তের পরও সরকার কোন তথ্য পায় না। তিনি কল্পনা অপহরণের সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে বিচার ও দোষীদের শাস্তি জানান। তিনি আরও বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে রাখা হয়েছে জনগণের নিরাপত্তার জন্য। কিন্তু লজ্জাকর বিষয় হল সরকার এদেরকে ভাড়া করা গুণ্ডার মতো ব্যবহার করছে।

ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি এম এম পারভেজ লেলিন বলেন, কল্পনা অপহরণকারী লে. ফেরদৌসের বিচার তো হয় নি, বরং তার পদোন্নতি হয়েছে। তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে দমন-পীড়নের ধারাবাহিকতায় পিসিপি নেতা সুনীল ত্রিপুরা ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের রিপন চাকমাকে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে।

ছাত্র ঐক্য ফোরামের যুগ্ম আহ্বায়ক সরকার আল ইমরান বলেন, সরকার ২২ বছরে কল্পনা অপহরণের তদন্ত শেষ করতে পারছে না। এ ঘটনায় বিচারের নামে তামাশা চলছে। ২২ বছরেও কল্পনার কোন হদিশ পাবো না তা কোনভাবে গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

ল্যাম্পপোষ্টের সাধারণ সম্পাদক নাহিদ সুলতানা লিসা বলেন, শুধু কল্পনা অপহরণ নয়, পাহাড়ে সমতলে অব্যাহতভাবে নারী নির্যাতন চলছে। জাতিগত দ্বন্দ্ব বিভিন্নভাবে উসকে দেয়া হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, শাসকগোষ্ঠী নিজেদের তৈরিকৃত আইনও মানছে না। তারা আইনি প্রক্রিয়ার ওপর আস্থা রাখতে পারছে না বলেই ক্রস ফায়ারের নামে বিনা বিচারে মানুষ হত্যা করছে।

সভাপতির বক্তব্যে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরুপা চাকমা বলেন, কল্পনা অপহরণের প্রতিবাদ করতে গিয়ে আমরা হারিয়েছি সমর-সুকেশ-রূপন-মনোতোষ চাকমাকে। সরকার চিহ্নিত অপহরণকারী লে. ফেরদৌসকে বাঁচাতে নানা ধরণের অপপ্রচার করে চলেছে। তিনি বলেন, কল্পনা অপরণের বিচার না হওয়ায় নারী নির্যাতকদের সাহস আরো বেড়েছে , ফলে বিলাইছড়ি দুই মারমা বোনকে ধর্ষণের মত ঘটনাসহ অহরহ ঘটনা ঘটছে। এমনকি চাকমা রাণীকে পর্যন্ত সেনা নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে।

কল্পনা অপহরণের বিচারের দাবির প্রতিবাদকে স্তব্দ করে দেয়ার ষড়যন্ত্র চলছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, গত বছর ৭ জুন কল্পনা অপহরণের বিচারের দাবিতে খাগড়াছড়িতে নারী সমাবেশে বিজিবিকে দিয়ে হামলা চালানো হয়। তিনি বলেন, যতই ষড়যন্ত্র বাধা বিপত্তি সৃষ্টি করা হোক না কেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কল্পনা অপহরণের বিচারের দাবি থেকে সরানো যাবে না।

তিনি টালবাহানা না করে অবিলম্বে কল্পনা চাকমার চিহ্নিত অপহরণকারী লে. ফেরদৌস ও তার দোসরদের গ্রেফতার-বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি রাজু ভাষ্কর্যে এসে শেষ হয়।
___________
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.