কল্পনা চাকমার অপহরণকারীদের গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে কাউখালীতে তিন সংগঠনের বিক্ষোভ

2
0

রাঙামাটি প্রতিনিধি
সিএইচটিনিউজ.কম
কাউখালী: হিল উইমেন্স ফেডারেশনের নেত্রী কল্পনা চাকমার চিহ্নিত অপহরণকারী লেঃ ফেরদৌস ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে হিল উইমেন্স ফেডারেশন, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম আজ ৭ জানুয়ারি সোমবার রাঙামাটির কাউখালীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেসমাবেশ থেকে বক্তারা কল্পনা চাকমা অপহরণ বিষয়ে সিআইডির চূড়ান্ত তদন্ত রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান করেন এবং অবিলম্বে এ রিপোর্ট প্রত্যাহার করে নিরপেক্ষ তদন্ত ও ন্যায় বিচারের দাবি জানিয়েছেন
কাউখালী উপজেলার কচুখালী থেকে আজ সোমবার দুপুর ১টায় একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়মিছিলটি কাউখালী উপজেলার চৌমুহনী বাজার ঘুরে খেলোয়াড় সমিতি মাঠে এসে শেষ হয়মিছিল পরবর্তী সেখানে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি কণিকা দেওয়ান, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কাউখালী থানা শাখার সভাপতি অর্জন দেওয়ান, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সদস্য রূপন মারমা, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক শিমন চাকমা ও কাউখালী কলেজ শাখার আহ্বায়ক নিশান চাকমাহিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় নেতা এচিং মারমা সমাবেশ পরিচালনা করেন
সমাবেশে বক্তারা কল্পনা চাকমা অপহরণ বিষয়ে সিআইডির দাখিল করা প্রহসনমূলক চূড়ান্ত তদন্ত রিপোর্টকে পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণ কিছুতেই মেনে নেবে না উল্লেখ করে বলেন, এ রিপোর্টের মাধ্যমে কল্পনা চাকমার চিহ্নিত অপহরণকারীদের পুরোপুরি আড়াল করা হয়েছেএ ধরনের অসত্য ও বানোয়াট রিপোর্ট পার্বত্য চট্টগামের জনগণের কাছে কিছুতেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে নাঅবিলম্বে এ রিপোর্ট প্রত্যাহার করে নিরপে তদন্ত ও ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে হবে
বক্তারা আরো বলেন, কল্পনা চাকমাকে ১৯৯৬ সালের ১২ জুন দিবাগত রাতে সেনা অফিসার লেঃ ফেরেেদৗস ও তার সহযোগীরা অপহরণ করেছে তা দিবালোকের মতোই পরিষ্কারকিন্তু বাংলাদেশের শাসকগোষ্ঠী মরিয়া হয়ে কল্পনা অপহরণকারী লেঃ ফেরদৌসকে রক্ষার যে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে তার মাধ্যমে এই শাসকগোষ্ঠী পাঞ্জাবী শাসকগোষ্ঠীর মতোই চরম উগ্র ও সংকীর্ণ জাতীয়তাবাদী আচরণ করছেশাসকগোষ্ঠীর এই আচরণই প্রমাণ করে দিচ্ছে পার্বত্য চট্টগ্রামের জুম্ম জনগণের উপর যুগ যুগ ধরে চলা নিপীড়ন নির্যাতনের কোনোই প্রতিকার বা প্রতিরোধে সরকার আন্তরিক নয়ফলে পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়ি নারীদের উপর নিপীড়ন-নির্যাতন উদ্বেগজনক হারে বেড়ে চলেছে এবং পার্বত্য চট্টগ্রামে বিভিন্ন সময়ে সংঘটিত হত্যাকান্ডের বিচার হচ্ছে না
বক্তারা হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, আগামী ১৩ জানুয়ারী সিআইডির চূড়ান্ত তদন্ত রিপোর্টের ভিত্তিতে ও প্রহসনমূলক বিচার কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে যদি অপহরণকারীদের রক্ষা করা হয় তাহলে পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণ চুপ করে বসে থাকবে নাতিন সংগঠন আবারো কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করতে বাধ্য হবে
বক্তারা কল্পনা চাকমার অপহরণকারীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে সোচ্চার হওয়ার জন্য সকল মানবতাবাদী শক্তি ও সর্বস্তরের জনগণের প্রতি আহ্বান জানান
বক্তারা অবিলম্বে কল্পনা চাকমার চিহ্নিত অপহরণকারী লেঃ ফেরদৌস ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবি জানান

Print Friendly, PDF & Email

2 মন্তব্য

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.