কল্পনা চাকমার অপহরণকারী লে. ফেরদৌসকে গ্রেফতারের দাবি

73
0

সিএইচটিনিউজ.কম
SajekKalpanaopohoronprotibadsova-300x168সাজেক(রাঙামাটি: কল্পনা চাকমার চিহ্নিত অপহরণকারী লে: ফেরদৌসকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ ও গণতান্ত্রিক যুবফোরাম সাজেক শাখার নেতৃবৃন্দ।

আ্জ বৃহস্পতিবার সাজেকের গঙ্গারাম উজো বাজারে সাজেক ভুমিরক্ষা কমিটি ও সাজেক নারী সমাজের অফিসে আয়োজিত এক প্রতিবাদী আলোচনা সভায় নেতৃবৃন্দ এই দাবি জানান।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন পিসিপি সাজেক বিশেষ থানা শাখার সভাপতি রিপন জ্যোতি চাকমা। সভায় বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর সংগঠক ও সাজেক এলাকার সমন্বয়ক মিঠুন চাকমা, সাজেক ভুমি রক্ষা কমিটির সভাপতি জ্ঞানেন্দ ‍বিকাশ চাকমা, উজো বাজার পরিচালনা কমিটির সভাপতি জ্যোতিলাল চাকমা, গণতান্ত্রিক যুবফোরাম সাজেক বিশেষ শাখার অর্থ সম্পাদকা মিলন চাকমা প্রমুখ।

প্রতিবাদী আলোচনা সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, কল্পনা চাকমাকে অপহরণ করার পরে ১৮ বছর পেরিয়ে গেছে। কিন্তু এই রাষ্ট্র এখনো কল্পনা অপহরণকারী এক সেনা কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনতে সফলকাম হতে পারেনি। এই ধরণের মর্মান্তিক ব্যর্থতা পুষে রেখে রাষ্ট্র ও সরকারের সত্যিকারের কল্যান ও মঙ্গল সাধিত হতে পারে না।

বক্তা্গণ বলেন, লে: ফেরদৌস একজন সেনা কর্মকর্তা তথা রাষ্ট্রের কর্মচারী হিসেবে তার বিরুদ্ধে অপহরণের অভিযোগ উত্থাপিত হবার পরেও যখন সেই সেনা কর্মকর্তা তথা রাষ্ট্রের কর্মচারীকে বিচারের আওতায় আনা হচ্ছে না তখন সরকার প্রকৃতপক্ষে পার্বত্য চট্টগ্রামের জুম্ম জনগণের উপর নিপীড়ন ও নির্যাতনের রাষ্ট্রীয় বৈধতা দিয়ে যাচ্ছে বলেই বোঝা যায়।এবং তা্রই ধারাবাহিকতায় সেনা শাসন অপারেশন উত্তরণ এখনো জারি রাখা হয়েছে।

বক্তাগণ আরো বলেন, এই সেনাকর্তৃত্ব ‍দিয়ে নির্যাতন নিপীড়ন ও ভুমি বেদখল অব্যাহত করতে না পারার কারণে বাড়তি সীমান্ত নিরাপত্তা বাহিনী বিজিবি দপ্তর স্থাপন করে, র‌্যাব মোতায়েন করে সরকার নির্যাতনের স্টীমরোলার ক্রমাগত তীব্রতর করে যাচ্ছে। এ সময় বক্তাগণ আরো বলেন, পার্বত্য জনগণকে নির্যাতন নিপীড়ন করে দমানো সম্ভব হবে না।

বক্তারা বলেন, সম্প্রতি রাঙামাটি পুলিশ সুপার ও কল্পনা চাকমা অপহপরণের তদন্ত কর্মকর্তা আমেনা বেগম সাংবাদিকদের সামনে বলেছেন যে, কল্পনা এখনো বেচে থাকতে পারে। এই ধরণের দায়সারাহীন এবং তথ্যপ্রমাণহীন বক্তব্যকে প্রহসন ও কল্পনা অপহরণ ঘটনাকে ধামাচাপা দেয়ার অপচেষ্টা উল্লেখ করে নেতৃবৃন্দ পুলিশ এই বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানান এবং এতসব ‘বাকোয়াজ’ না করে লে: ফেরদৌস তার সহযোগী ভিডিপি কমান্ডার নুরুল হক ও সালেহ আহমেদকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করার দাবি জানান। এই ধরণের বক্তব্য দিয়ে অপহরণকারী লে: ফেরদৌ্স ও তার দোসরদের সরকার বাচানোর চেষ্টা করছে বলে নেতৃবৃন্দ সভা থেকে উল্লেখ করেন।

প্রতিবাদী সভা থেকে নেতৃবৃন্দ বাবুছড়ায় বিজিবি কর্তৃক ভুমি বেদখলের ষড়যন্ত্র ও গত ১০ জুন সাধারণ জুম্ম জনগণের উপর হামলার তীব্র নিন্দা জানান।
————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.