কল্পনা চাকমা অপহরণের ১৬তম বার্ষিকীতে কুদুকছড়িতে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের মিছিল ও সমাবেশ, লেঃ ফেরদৌসের বিচার দাবি

0
0
রাঙামাটি প্রতিনিধি
সিএইচটিনিউজ.কম
কল্পনা চাকমা অপহরণের ১৬তম বার্ষিকীতে রাঙামাটির কুদুকছড়িতে মিছিল ও সমাবেশ করেছে হিল উইমেন্স ফেডারেশনআসুন, কল্পনা অপহরণকারীসহ সকল নারী নির্যাতনকারীর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলি” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে অবিলম্বে কল্পনা অপহরণের তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ, চিহ্নিত অপহরণকারী লেঃ ফেরদৌস ও তার দোসরদের বিচার  এবং পার্বত্য চট্টগ্রামে নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে আজ ১২ জুন মঙ্গলবার সকাল ১১টায় রাঙামাটি জেলা সদরের কুদুকছড়ি বাজারের পাশ্ববর্তী বড় মহাপুরম উচ্চ বিদ্যালয়ের মুল গেটের সামনে মাঠে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি কণিকা দেওয়ান। এতে আরো বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড পিপল্‌স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)এর রাঙামাটি জেলা ইউনিটের প্রতিনিধি ক্যহলাচিং মারমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মাইকেল চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক থুইক্যচিং মারমা, ঘিলাছড়ি নারী সমাজের প্রতিনিধি শান্তি প্রভা চাকমা ও কল্পনা চাকমার বড় ভাই কালী চরণ চাকমাসমাবেশে স্বাগত বক্তব্য রাখেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাদ্রী চাকমা ও উপস্থাপনা করেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক রীনা দেওয়ান
বক্তারা বলেন, কল্পনা চাকমা অপহরণের ১৬ বছর অতিক্রান্ত হলেও চিহ্নিত অপহরণকারী লে: ফেরদৌস ও তার দোসরদের আজ পর্যন্ত কোন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নিসরকার অপরাধীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে আদরের সন্তানের মতো লালন পালন করছেঅপরাধীদের বিচার না হওয়ার ফলে সেনা-সেটলার কর্তৃক পার্বত্য চট্টগ্রামে মা-বোনেরা প্রায় সময়ই নিপীড়ন-নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন
বক্তারা বলেন, শিশু, স্কুলছাত্রী থেকে শুরু করে কোন বয়সের নারীই আজ কোনখানে নিরাপদ নয়এ কয়েক মাসের মধ্যে পার্বত্য চট্টগ্রামে ৬ পাহাড়ি নারী ধর্ষণ ও খুনের শিকার হয়েছেনএছাড়া একজন ধর্ষণ প্রচেষ্টার শিকার ও অপর একজন অপহৃত হয়েছেনপার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারা দেশে নারী নির্যাতন, খুন, গুম ও অপহরণ ঘটনা বৃদ্ধি পেলেও সরকার এসব বন্ধে প্রয়োজনীয় কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করছে না
বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে নারী নির্যাতনের পাশাপাশি পাহাড়ি জনগণকে নিজ ভূমি থেকে উচ্ছেদের নানা চক্রান্ত চলছেরাষ্ট্রীয় বাহিনীর প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ মদদে এসব হচ্ছেসরকার ভূমি কমিশনের বিতর্কিত চেয়ারম্যান খাদেমুল ইসলাম চৌধুরীকে দিয়ে আমাদের বাপ-দাদার ভিটেমাটি, জায়গা-জমি সেটলারদের দিয়ে দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছেএকতরফা ও অবৈধ শুনানী কার্যক্রমের মাধ্যমে খাদেমুল ইসলাম চৌধুরী এ কাজটি করার চেষ্টা করছেন। পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণখাদেমুল ইসলাম চৌধুরী ও সরকারের এ প্রচেষ্টা কিছুতেই সফল হতে দেবে না।
বক্তারা নারী সমাজের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, কল্পনা চাকমার অপহরণকারী লে: ফেরদৌস ও তার সহযোগীদের বিচার না হওয়া পর্যন্ত আমাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন করতে হবেবেঁচে থাকার জন্য আমাদের যা যা করা দরকার তাই করতে হবেদাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের লড়াই চালিয়ে যেতে হবেবক্তারা আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির খপ্পর থেকে বেরিয়ে এসে জাতীয় অস্তিত্ব রার আন্দোলনে সামিল হওয়ার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানান
কল্পনা চাকমার বড় ভাই কালি চরণ চাকমা বলেন, লে: ফেরদৌস কর্তৃক আমার বোনকে অপহরণের পর সরকার যে তদন্ত কমিটি গঠন করেছিল তা ছিল কেবল লোক দেখানোযদি তাই না হতো তাহলে ১৬ বছরেও তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ করা হলো না কেন? তিনি শেখ হাসিনার কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন, পাহাড়ি মেয়ে হওয়ার কারণেই কি আমার বোন কল্পনা চাকমার অপহরণকারী লেঃ ফেরদৌসের বিচার হচ্ছে না? তিনি কল্পনা অপহরণ সহ এ যাবৎ যে সকল নারী ধর্ষণ ও নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে তার বিচার দাবি করেন
সমাবেশ থেকে বক্তারা অবিলম্বে কল্পনা অপহরণের তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ ও চিহ্নিত অপহরণকারী লে:ফেরদৌস ও তার দোসরদের বিচার, পার্বত্য চট্টগ্রামে প্রথাগত ভূমি অধিকার নিশ্চিত করা, পঞ্চদশ সংশোধনী বাতিল করে সংখ্যালঘু জাতিসমূহের সাংবিধানিক স্বীকৃতি, পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারা দেশে সভা, সমাবেশ, মিছিল মিটিঙের ওপর অঘোষিত নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া, পার্বত্য চট্টগ্রামে সেনা ও সেটলার কর্তৃক পাহাড়িদের ভূমি বেদখল বন্ধ করা, নারী নির্যাতন বন্ধ এবং এ যাবৎ সংঘটিত সকল ধর্ষণের বিচার ও ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে সেনা ক্যাম্প ও সেটলার প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল কুদুকছড়ি বাজার প্রদক্ষিণ করে।

উল্লেখ্য, কল্পনা চাকমা ১৯৯৬ সালের ১২ জুন রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার নিউ লাল্যা ঘোনা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে রাতের অন্ধকারে তৎকালীন কজইছড়ি আর্মি ক্যাম্পের কমান্ডার লেঃ ফেরদৌস ও তার কিছু সহযোগি কর্তৃক অপহৃত হনঅপহরণের পর থেকে তার আর কোন হদিশ পাওয়া যায়নি

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.