ক্যান্টনমেন্টের বানানো গল্প ছাপানোয় খাগড়াছড়িতে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় আগুন

0
0

খাগড়াছড়ি : আজ সোমবার (২৩ অক্টোবর ২০১৭)  দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় “পার্বত্য অঞ্চলে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বেপরোয়া চাঁদাবাজি” শিরোনামে ছাপানো সংবাদের প্রতিবাদে বিকাল সাড়ে ৪টায় খাগড়াছড়ি জেলা শহর স্বনির্ভর বাজারে বিক্ষোভ মিছিল ও আগুন দিয়ে ইত্তেফাক পত্রিকার কপি পুড়িয়েছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি), গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম (ডিওয়াইএফ) ও হিল উইমেন্স ফেডারেশন (এইচডব্লিউএফ)।

মিছিল শেষে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জিকো ত্রিপুরা, পিসিপি খাগড়াছড়ি জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তপন চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক অমল ত্রিপুরা। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন হিল উইমেন্স ফেডারেশন খাগড়াছড়ি জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক রেশমী মারমা।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, আজ ২৩ অক্টোবর সোমবার দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় শেষ পৃষ্ঠা ও দ্বিতীয় পৃষ্ঠায় “পার্বত্য অঞ্চলে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বেপরোয়া চাঁদাবাজি” শিরোনাম দিয়ে ছাপানো আবুল খায়ের নামে এক জনৈক সাংবাদিকের করা খবরটি জঘন্যতম মিথ্যাচার, উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও বানোয়াট। উক্ত সংবাদ প্রচলিত হলুদ সাংবাদিকতাকেও হার মানিয়েছে। ইত্তেফাক পত্রিকা মূলত পার্বত্য চট্টগ্রামে নিয়োজিত সেনাবাহিনীর মুখপত্রের মতো ক্যান্টনমেন্ট থেকে সরবহরাহকৃত কাল্পনিক গল্প কোন প্রকার যাচাই বাছাই না করে প্রকাশ করেছে। এর মধ্যদিয়ে পত্রিকাটি পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণের নিকট বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছে এবং সেনাবাহিনীর আজ্ঞাবহ মুখপত্র হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।

বক্তারা আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম অশান্ত ও সন্ত্রাস কবলিত প্রমাণ করতে পার্বত্য চট্টগ্রামে নিয়োজিত সেনাবাহিনীর একটি দুর্নীতিবাজ ও কায়েমি স্বার্থন্বেষি মহল তৎপর রয়েছে। তথাকথিত সন্ত্রাসী আটক ও অস্ত্র উদ্ধারের নামে সাজানো নাটক মঞ্চস্থ করে নিজেদের কাপুরুষত্বতাকে আড়াল করা এবং প্রমোশন লাভে ভূয়া বীরত্ব প্রমাণ করাই তাদের আসল উদ্দেশ্য। পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রতিবাদী জনতা সেনাবাহিনীর সে দূরভিসন্ধিমূলক মনোবাসনা পুরণ হতে দেবে না। পার্বত্য চট্টগ্রামের অধিকার বঞ্চিত জনগণের প্রাণের সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস্ ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর বিরুদ্ধে যতই ষড়যন্ত্রমূলক অপপ্রচার চালানো হোক না কেন ষড়যন্ত্রকারীরা কোনদিন সফল হবে না। পার্বত্য চট্টগ্রামের আপামর মুক্তিকামী জনতা তা প্রতিহত করবেই!

সমাবেশ শেষে আগুন দিয়ে ইত্তেফাক পত্রিকার কপি পোড়ানো হয়।
————-
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.