খাগড়ছড়িতে নিরীহ ব্যক্তিকে আটকের প্রতিবাদে এলাকাবাসীর সড়ক অবরোধ : সেনা ও পুলিশের লাঠিপেটায় ৬ নারী আহত

0
0
খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি
সিএইচটিনিউজ.কম
নিরীহ ব্যক্তিকে আটকের প্রতিবাদে এলাকার সাধারণ জনতার সড়ক অবরোধ 

খাগড়াছড়ি : খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার ভেইবোনছড়া ইউনিয়নে ম্রাসানাই কার্বারী পাড়া থেকে সেনাবাহিনী কর্তৃক নিরীহ ব্যক্তি (সরকারী কর্মচারী) অরুণ বিকাশ চাকমাকে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলকভাবে অস্ত্র গুজে দিয়ে আটকের ঘটনায় এলাকার শত শত জনতা খাগড়াছড়ি-পানছড়ি সড়ক অবরোধ করে ব্যাপক প্রতিবাদ সংগঠিত করেছে। সকাল ৯টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত তারা সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে উত্তেজিত জনতা পুলিশের কাছ থেকে অরুণ বিকাশ চাকমাকে কেড়ে নেয়। এ সময় সেনা ও পুলিশের লাঠিপেটায় কমপক্ষে ৬ জন নারী আহত হয়েছে।উল্লেখ্য, আজ ১৫ অক্টোবর মঙ্গলবার দিবাগত রাত আনুমানিক ২টার সময় ভাইবোন ছড়া সেনা ক্যাম্প থেকে একদল সেনা অরম্নণ বিকাশ চাকমার বাড়ি ঘেরাও করে। এ সময় সেনারা তার বাড়ি তল্লাশি চালায় এবং একটি আলমারি ভেঙে দেয়। সেনারা তার মুরগী রাখার ঘরে একটি ভাঙাচোরা বন্দুক নিজেরা রেখে দিয়ে আবার সেটি উদ্ধার করে তাকে আটক করে নিয়ে যায়। পরে তাকে ভাইবোনছড়া পুলিশ ফাঁড়িতে হস্তান্তর করা হয়।

সেনা-পুলিশের হামলায় আহত এক পাহাড়ি নারী
এরপর সকালে এলাকার জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় মুরুব্বীরা পুলিশ ফাঁড়ি ও স্থানীয় সেনা ক্যাম্পে গিয়ে অরুণ বিকাশ চাকমাকে আটকের প্রতিবাদ জানান এবং তাকে মুক্তি দেয়ার জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু বার বার অনুরোধ করা সত্ত্বেও প্রশাসন ও সেনা কর্তৃপক্ষ তাকে ছেড়ে দিতে অস্বীকার করলে এলাকার শত শত জনতা খাগড়াছড়ি-পানছড়ি সড়ক অবরোধ করে এবং পুলিশ ফাঁড়ি ঘিরে রেখে আটক ব্যক্তিকে মুক্তির দাবি জানায়। এরপরও তাকে ছেড়ে না দেয়ায় বিকালের দিকে উত্তেজিত জনতা ব্যাপক চাপ সৃষ্টি করে পুলিশের কাছ থেকে আটক অরম্নণ বিকাশ চাকমাকে কেড়ে নিয়ে আসে। এ সময় সেনা ও পুলিশের লাঠিপেটায় কমপক্ষে ৬ জন নারী আহত হয়। আহতদের মধ্যে অনেকের মাথায়, পায়ে ও হাতে জখম হয়েছে। তাদেরকে খাগড়াছড়িতে নিয়ে এসে প্রাথমিক চিকিসা দেয়া হয়েছে।
বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে বলে জানা গেছে।
ইউনাইটেড পিপল্‌স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের প্রধান সংগঠক প্রদীপন খীসা এক বিবৃতিতে নিরপরাধ ব্যক্তিকে আটকের ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে সেনাবাহিনী যে অন্যায়ভাবে সাধারণ জনগণের উপর নিপীড়ন-নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে তা মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলকভাবে অস্ত্র গুঁজে দিয়ে সরকারী কর্মচারী অরুণ বিকাশ চাকমাকে আটকের ঘটনা আবারো প্রমাণ করলো।
তিনি পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে সেনা শাসন তুলে নিয়ে জনগণের উপর নিপীড়ন-নির্যাতন বন্ধ করার জোর দাবি জানিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.