খাগড়াছড়িতে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানসহ দুই ব্যক্তিকে সেনা কমান্ডার কর্তৃক হেনস্থার অভিযোগ

0
2

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
Sena-hoiraniখাগড়াছড়ি সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নিরাপদ তালুকদার সহ ২ ব্যক্তি সেনা কমান্ডার কর্তৃক হেনস্থার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ ২৭ ফেব্রুয়ারী সকাল পৌনে ৭টার দিকে কমলছড়ি ইউনিয়নের আমতলী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে নিরাপদ তালুকদারের কাছ থেকে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে এ প্রতিবেদককে বলেন, আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল পৌনে ৭টার দিকে আমি ও পরেশ চাকমা আমতলির নিজ নিজ বাড়ি থেকে ভান্তেদের সিয়ং দিতে মোটর সাইকেলে করে পার্শ্ববর্তী বৌদ্ধ কুটিরে যাচ্ছিলাম। কিছুদূর যাবার পর টহলরত একটি সেনা পিকআপ ভ্যান থেকে এক সেনা কমান্ডার আমাদেরকে থামার জন্য সিগন্যাল দেয়। এ সময় সেনা কমান্ডারটি আমাদের কাছ থেকে কোথায় যাচ্ছ? বলে জিজ্ঞেস করে। আমরা কুটিরে যাচ্ছি বলে উত্তর দিলাম। এ সময় সেনা কর্মকর্তাটি বলেন, জানেন না ১৪৪ ধারা জারি রয়েছে? তার কথার উত্তরে পরেশ চাকমা বলেন- তা জানি,  কিন্তু ১৪৪ ধারা জারি হলে যে ধর্মকর্মও করা যাবে না এটাতো জানি না। এ কথা বলার সাথে সাথে ওই সেনা কমান্ডার আমাদেরকে গাড়ি থেকে নামতে বলেন এবং গালিগালাজ করতে থাকেন। গাড়ি থেকে নামার পর আমাদের দুইজনকে আলাদা করা হয়। এ সময় সেনা কমান্ডারটি পরেশ চাকমাকে গালে তিনটা চড় মারেন। পরে আমাদেরকে ধর্ম ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন গালি-গালাজ করে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ঘটনাটি বিষয়ে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংস্থাকে অবহিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন নিরাপদ তালুকদার। উক্ত সেনা কমান্ডারটি মহালছড়ি জোনের অধীন ভুয়াছড়ি ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর জাভেদ বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, গত ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারী কমলছড়ি ও বেতছড়ি গ্রামে পাহাড়িদের উপর সেটলার হামলার পর প্রশাসন কমলছড়ি ইউনিয়ন ও মহালছড়ি উপজেলায় ১৪৪ ধারা জারি করায় এলাকায় সেনা টহল বাড়ানো হয়।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.