খাগড়াছড়িতে নব্য মুখোশ বাহিনী সৃষ্টির প্রতিবাদে চট্টগ্রামে পিসিপি-যুব ফোরামের বিক্ষোভ

0
1

চট্টগ্রাম : পার্বত্য চট্টগ্রামে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত কর, গণ আন্দোলন দমনের লক্ষ্যে খাগড়াছড়িতে দাগী আসামী, মাদকসেবী ও অস্ত্র চোরাকারবারীদের দিয়ে রাজনৈতিক দল গঠনের নামে সন্ত্রাসী বাহিনী সৃষ্টির ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে আজ বুধবার (১৫ই নভেম্বর) চট্টগ্রাম মহানগরীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম।

নগরীর ডিসি হিল থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে প্রেসক্লাব ঘুরে চেরাগি পাহাড় মোড়ে এসে এক বিক্ষোভ সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। ছাত্র নেতা অংকন চাকমার সঞ্চালনায় গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের মহানগর শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি উচিংশৈ চাক (শুভ)-এর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পিসিপি’র চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারন সম্পাদক রুপন চাকমা, নগর শাখার সাধারণ সম্পাদক জিকো চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের নগর শাখার সদস্য পরেশ ত্রিপুরা ও পিসিপির কেন্দ্রিয় সাংগঠনিক সম্পাদক সুনয়ন চাকমা।

সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, বিভিন্ন আঞ্চলিক সংগঠন থেকে দুর্নীতি-অনিয়মসহ নানা কেলেঙ্কারির অভিযোগে বহিষ্কৃত ও বিচ্যুত কতিপয় কর্মী, বখাটে বিপদগামী তরুণ, মদ-গাজা-হিরোইনসেবী যুবকদের নিয়ে সেনাবাহিনী প্রত্যক্ষ মদদে পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি জনগণের ন্যায্য অধিকার আদায়ের সংগ্রামকে বাধাগ্রস্ত করতে আজ ১৫ই নভেম্বর খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফ’র নাম ব্যবহার করে সন্ত্রাসী সংগঠন ‘নব্য মুখোশ বাহিনী’ সৃষ্টি করা হয়েছে।

পাহাড়ে দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকা ভ্রাতৃঘাতি সংঘাতকে উষ্কে দেয়ার জন্য খাগড়াছড়ির লক্ষ্মীছড়িতে বোরকা পার্টির স্টাইলে নব্য এই মুখোশ বাহিনী সৃষ্টি করা হয়েছে বলে বক্তারা অভিযোগ করেন।

বক্তারা হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, জাতির বিরুদ্ধে গিয়ে কোন সন্ত্রাসী সংগঠন ঠিকে থাকতে পারেনি। নব্য সৃষ্ট এই মুখোশ বাহিনীও টিকে থাকতে পারবে না। লক্ষ্মীছড়ির বোরকা পার্টিকে শাসকগোষ্ঠী ব্যবহারের পর যেভাবে টয়লেট টিস্যুর মত ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছে, নব্য এই মুখোশ বাহিনীকেও শাসকগোষ্ঠী ব্যবহারের পর ছুঁড়ে ফেলে দেবে।

বক্তারা ইতিমধ্যে যারা জুম্ম স্বার্থ বিরোধী নব্য এই মুখোশ বাহিনীতে নাম লিখিয়েছে তাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার আহ্বান জানান।
—————-
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.