খাগড়াছড়িতে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের মিছিলে পুলিশী হামলা, আটক ৪০, ঘটনার প্রতিবাদে আগামীকাল খাগড়াছড়িতে সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধ

0
1

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার ১১তম কাউন্সিল উপলক্ষে সমাবেশ ও নতুন জেলা কমিটির শপথ গ্রহণ শেষে বেলা সোয়া ২টার সময় স্বনির্ভর মাঠ থেকে নতুন কমিটির নেতৃত্বে একটি র‌্যালী বের করতে চাইলে পুলিশ জেলা পরিষদের সামনে র‌্যালীটি আটকে দেয়। এতে পুলিশের সাথে র‌্যালীতে অংশগ্রহণকারী ছাত্র পরিষদের কর্মী-সমর্থকদের সাথে বাক বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে পুলিশ র‌্যালীতে অংশগ্রহণকারীদের উপর লাঠিচার্জ, টিয়ার শেল নিক্ষেপ ও রাবার বুলেট ছুঁড়ে র‌্যালীতে অংশগ্রহণকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়ার চেষ্টা করে। এতে ব্যর্থ হয়ে পুলিশ র‌্যালীতে অংশগ্রহণকারীদের দিকে লক্ষ্য করে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলিবর্ষণ করে। এ সময় সেনাবাহিনীকেও মঠে নামানো হয়। ফলে স্বনির্ভর এলাকায় আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি হয়। পুলিশ ও সেনাবাহিনী স্বনির্ভর ও উত্তর খবংপুজ্জে এলাকায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে হামলা চালায়। এ সময় তারা নিরীহ গ্রামবাসীকে বাড়ি থেকে টেনে হেঁচড়ে বের করে মারধরের পর আটক করে থানায় নিয়ে যায়। তাদের নিপীড়ন থেকে নারী এবং শিশুরাও বাদ যায়নি। স্বনির্ভর ও খবংপুজ্জে এলাকা থেকে পুলিশ ৪০ জনকে আটক করে। আটকৃতদের মধ্যে থেকে রাতে ২৭ জনকে ছেড়ে দেয়া হলেও বাকী ১৩ জনকে এখনো থানায় আটক রাখা হয়েছে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ আগামীকাল ১৭ ডিসেম্বর খাগড়াছড়ি জেলায় সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধের ডাক দিয়েছে।

অপরদিকে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিকফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)এর খাগড়াছড়ি জেলা সমন্বয়ক উজ্জ্বল স্মৃতি চাকমা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। বিবৃতিতে তিনি এ ঘটনাকে গণতান্ত্রিক অধিকারের উপর নগ্ন হস্তক্ষেপ উল্লেখ করে বলেছেন, সভা-সমাবেশ ও মিটিং-মিছিলের অধিকার একটি সংবিধান স্বীকৃত গণতান্ত্রিক অধিকার। পুলিশ বিনাকারণে র‌্যালীর উপর আক্রমণ চালিয়ে গণতান্ত্রিক অধিকারের উপর নগ্ন হস্তক্ষেপ করে ফ্যাসিস্ট আচরণ করেছে।

বিবৃতিতে তিনি অবিলম্বে র‌্যালীতে হামলাকারী পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ, সভা-সমাবেশ ও মিটিং-মিছিলের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার ও আটককৃতদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।

গতকাল ১৫ ডিসেম্বর পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার ১১তম কাউন্সিল ও সম্মেলন উপলক্ষে এক সমাবেশের আয়োজন করা হয়। সকাল ১১:৩০ টায় স্বনির্ভর মাঠে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সহ সভাপতি শিপু চাকমা। এতে অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি ক্যহ্লাচিং মারমা, ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর খাগড়াছড়ি সদর থানার সমন্বয়ক কালোপ্রিয় চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক মিঠুন চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাদ্রী চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের পানছড়ি থানা শাখার সভাপতি প্রণয় চাকমা, মহালছড়ি থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক পলাস চাকমা, খাগড়াছড়ি কলেজ শাখার সভাপতি বিপুল চাকমা। সমাবেশ পরিচালনা করেন আপ্রুসি মারমা। সমাবেশে খাগড়াছড়ি জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে সহস্রাধিক ছাত্র-যুব জনতা যোগ দেন।

 

উক্ত কাউন্সিল ও সম্মেলনের মাধ্যমে আপ্রুসি মারমাকে সভাপতি, উমেশ চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক ও পলাস চাকমাকে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত করে ১৯ সদস্য বিশিষ্ট খাগড়াছড়ি জেলা শাখার নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। নতুন জেলা কমিটিকে শপথ বাক্য পাঠ করার পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি ক্যহ্লাচিং মারমা।

 


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.