বিলাইছড়িতে সেনাবাহিনী কর্তৃক মারমা কিশোরী ধর্ষণের প্রতিবাদে

খাগড়াছড়িতে প্রগতিশীল মারমা ছাত্র সমাজের মানববন্ধন

0
0

খাগড়াছড়ি : রাঙামাটির বিলাইছড়িতে সেনাবাহিনী কর্তৃক মারমা কিশোরী ধর্ষণের প্রতিবাদে প্রগতিশীল মারমা ছাত্রসমাজ(প্রমাছাস) এর উদ্যোগে খাগড়াছড়িতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ বুধবার (২৪ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টায় খাগড়াছড়ি সরকারি মহিলা কলেজ এলাকায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে প্রমাছাস-এর কেন্দ্রীয় সদস্য ওয়াকিমং চৌধুরী’র সঞ্চালনায় ও সংগঠক ক্যসাই মগ-এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সংগঠনটির জেলা আহ্বায়ক অংহ্লা মারমা। এতে সংহতি জানিয়ে আরো বক্তব্য রাখেন হিল উইমেন্স ফেডারেশন’র খাগড়াছড়ি জেলা সভাপতি দ্বিতীয়া চাকমা, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)-এর খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ শাখার সাধারণ সম্পাদক জেসিম চাকমা ও ত্রিপুরা স্টুডেন্টস ফোরাম বাংলাদেশ-এর খাগড়াছড়ি সদর থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক দহেন বিকাশ ত্রিপুরা প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, তথাকথিত সন্ত্রাসী খোঁজার নামে সেদিন দিবাগত রাত ১:৩০টায় সেনা সদস্যরা বাড়িতে ঢুকে কিশোরী দুই বোনকে ধর্ষণ করেছে। ঘটনা ধামাচাপা দিতে এলাকার মুরব্বী ও পরিবারকে ভিক্টিমদের হাসপাতালে না নিতে হুমকি দেয় সেনাবাহিনী। প্রশাসন ও সংশ্লিষ্টদের নিকট অভিযোগ করা হলেও এখনো ধর্ষণকারীদের চিহ্নিত করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়নি। তারা বলেন, ১৯৯৬ সালে কল্পনা চাকমাকে অপহরণ, ২০১৭ সালে রমেল চাকমাকে হত্যা ও পার্বত্য চট্টগ্রামে ডজনের অধিক গণহত্যায় জড়িত সেনা কর্মকর্তাদের এখনও বিচার হয়নি।

বক্তারা অবিলম্বে ধর্ষণের সাথে জড়িত সেনা সদস্যদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গত রবিবার (২১ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে বিলাইছড়ির ফারুয়া ক্যাম্পের একদল সেনা সদস্য অরাছড়ি গ্রামে গিয়ে তল্লাশির নামে বাড়িতে ঢুকে কিশোরী দুই বোনকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ রয়েছে। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীরা বর্তমানে রাঙামাটি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
—————–
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.