খাগড়াছড়িতে বৈ-সা-বি উপলক্ষে সর্বজনীন বৈসাবি উদযাপন কমিটির বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ

0
1

সিএইচটিনিউজ.কম

ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

খাগড়াছড়ি: পার্বত্য চট্টগ্রামে বসবাসরত মারমা, চাকমা, ত্রিপুরাসহ অন্যান্য জাতিসত্তাসমূহের ঐতিহ্যবাহী সামাজিক উৎসব বৈ-সা-বি (বৈসু-সাংগ্রাই-বিঝু…) উপলক্ষে খাগড়াছড়িতে সর্বজনীন বৈসাবি উদযাপন কমিটির উদ্যোগে আগামী ১২ এপ্রিল থেকে ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে-

-১২ এপ্রিল ২০১৫, রবিবার, সকাল ৬-৭টার মধ্যে চেঙ্গী নদীতে ফুল ভাসানো ও ৯টায় শোভাযাত্রা(র‌্যালি)। ফুল ভাসানো হবে খাগড়াছড়ি সদরের মধ্য হবংপুজ্জ্যার বালুঘাটে। আর শোভাযাত্রাটি মধুপুর থেকে শুরু হয়ে উপজেলা মাঠে এসে শেষ হবে। শোভাযাত্রা শেষে সংক্ষিপ্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পানি খেলা ও গড়িয়া নৃত্য অনুষ্ঠিত হবে।

– ১৪ এপ্রিল সোমবার সন্ধ্যা ৬ – ৭টায় নতুন বছরের সুখ-শান্তি কামনায় মধ্য হবংপুজ্জ্যার বালুঘাটে (চেঙ্গী নদীর পাড়ে) প্রদীপ প্রজ্জ্বালন করা হবে।

– ১৩ – ১৬ এপ্রিল চাকমা, ত্রিপুরা ও মারমাদের বৈ-সা-বি (বৈসু-সাংগ্রাই-বিঝু) উৎসবের মুল দিনগুলিতে বয়স্ক এবং মুরুব্বীসহ দলবদ্ধভাবে পারস্পরিক শুভেচ্ছা বিনিময় করা হবে।

শোভাযাত্রা (র‌্যালি) ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন অংশগ্রহণ করবেন। উক্ত অনুষ্ঠান সফল করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে।

গত ১৩ মার্চ স্বনির্ভরস্থ ঠিকাদার সমিতি ভবনে অনুষ্ঠিত এক সভায় কিরণ মারমাকে আহ্বায়ক ও মিলন দেওয়ান মনাঙ-কে সদস্য সচিব করে ১১ সদস্য বিশিষ্ট সর্বজনীন বৈসাবি উদযাপন কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি সর্বসম্মতিক্রমে উপরোক্ত কর্মসূচি গ্রহণ করে।

সর্বজনীন বৈসাবি উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব মিলন দেওয়ান মনাঙ স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে কর্মসূচির বিস্তারিত জনানো হয়েছে।
———————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.