খাগড়াছড়িতে সেনা ক্যাম্পের পাশে সংস্কারবাদী-মুখোশদের চাঁদাবাজি

0
0

খাগড়াছড়ি॥ সেনা-মদদপুষ্ট জেএসএস সংস্কারবাদী-নব্য মুখোশ বাহিনীর সদস্যরা খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার ভাইবোন ছড়া ইউপি’র দেওয়ান পাড়ায় সেনা ক্যাম্পের পাশে সশস্ত্রভাবে অবস্থান নিয়ে পানছড়ি-খাগড়াছড়ি সড়কে চলাচল করা গাড়ি থেকে চাঁদা তুলছে। সেনাবাহিনীর সদস্যরা তাদের দেখেও না দেখার ভাণ করে রয়েছে বলে এলাকাবাসীর সূত্রে জানা গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দেওয়ান পাড়ার এক বাসিন্দা এই প্রতিবেদককে বলেন, সকাল ৯টা থেকেই ‘উন্দুররা’ (সংস্কারবাদী ও নব্য মুখোশ) অস্ত্র হাতে নিয়ে গাড়ি থামিয়ে চাঁদাবাজি করছে। এটা দেওয়ান পাড়া ক্যাম্প থেকে মাত্র দেড় দু শ’ গজ দূরে হবে, এবং ক্যাম্প থেকে দেখা যাবে।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার সকালে উন্দুরগুলো (বাংলায় ইঁদুর) আর্মিদের সহায়তায় কৃষি গবেষণা এলাকার দিক থেকে দেওয়ান পাড়ায় যায়। এ সময় তাদের নিরাপত্তা দেয়ার জন্য আর্মিরা গিরিফুল, শিবমন্দির, ২ নং রাবার বাগান ইত্যাদি এলাকায় কড়া পাহারা বসায়।

পরে সকাল ১১টার দিকে উন্দুরগুলো দেওয়ান পাড়ায় পৌঁছার পর পাঁচ রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে সংকেত দিলে আর্মিরা চলে যায়।

তবে পরদিন অর্থা গত মঙ্গলবার উন্দুরদের নিরাপত্তার জন্য আর্মিরা আবার চেঙ্গী নদীর পশ্চিম পাড়ে মাস্টার পাড়া, মতেন পাড়া, আপ্রুচি পাড়া, নির্মল কার্বারী পাড়া ও পাগলা পাড়ায় টহল দেয়। আর্মিদের এই টহল দলগুলোর কিছু অংশ গতকাল বিকেলে এবং আজ বুধবার সকালে সবাই চলে যায়।

এদিকে সেনা-মদদপুষ্ট উন্দুর সন্ত্রাসীরা দেওয়ান পাড়ায় আসার পর পরই পানছড়ি-খাগড়াছড়ি সড়কে শিবমন্দির, মুনিগ্রাম, দেওয়ানপাড়া, ১৭ মাইল, কুড়াদিয়া ছড়া ইত্যাদি এলাকায় জুম্ম দোকানদারদের দোকান বন্ধ রাখার হুমকি দিয়েছে।

প্রথমে তারা মোবাইলে হুমকি প্রদান করে। তবে আজ সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উন্দুররা আর্মিসহ আর্মি গাড়িতে করে এসে দোকান বন্ধ রাখা হয়েছে কিনা চেক করতে থাকে। দোকান খোলা দেখলে তারা দোকানীদেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং হুমকি দেয়।

জেএসএস সংস্কারবাদী গ্রুপের দীপন আলো, সাধন ও সাধুর নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা এসব অপকর্ম করছে বলে সূত্রগুলো জানিয়েছে।

বর্তমানে সংস্কারবাদী উন্দুরদের বিরুদ্ধে জনগণের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে। একজন মন্তব্য করে বলেন, পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে, তারা আমাদের পেটে লাথি মারছে। কোথাও যাওয়ার নেই। প্রয়োজনে খালি হাতে বুদ্ধিকে সম্বল করে এদেরকে মোকাবিলা করতে হবে।

তিনি বলেন সরকারের কাছে দাবি জানিয়ে কোন লাভ নেই। যেখানে আর্মিরাই হলো সরকারের বাপ, সেখানে সরকারের কাছে দাবি জানিয়ে কী লাভ?

‘সংস্কারবাদীদের মতো বেকুব আর নেই। তারা মনে করে আর্মিরা তাদের রক্ষা করবে। চিরদিন পাহারা দেবে। তারা আসলে বোকার স্বর্গে বাস করছে।’

তিনি বলেন জনগণই হলো আসল শক্তি। জনগণ একবার যদি ঐক্যবদ্ধ হয়ে দাঁড়ায় ও সংগ্রাম করে তাহলে সংস্কারবাদী কেন গণবিরোধী কোন অপশক্তি ঠিকতে পারবে না। তিনি জাতীয় কুলাঙ্গার জুম্ম রাজাকারদের হুমকিতে ভীত না হওয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান।
———————–
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.