খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের ঠিকাদারের ছুরিকাঘাতে ২ কর্মচারী আহত

0
1

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
churikhagatখাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদে ঠিকাদারের ছুরিকাঘাতে পরিষদের দুই কর্মচারি গুরুতর আহত হয়েছে । তাদেরকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে । আহতরা হচ্ছেন, পরিষদের জুনিয়র অডিটর মফিজুর রহমান মোল্লা (৩৫) ও অফিস পিয়ন মিন্টু কুমার দাশ(৪৫) । বুধবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরপর ঠিকাদার আশুতোষ ত্রিপুরা ও স্বপন দাশ দ্রুত পালিয়ে যায়।

এ হামলার প্রতিবাদে ও দোষীদের গ্রেফতারপূর্বক শাস্তির দাবীতে বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি পালন করছে পার্বত্য জেলা পরিষদের  কর্মচারীরা। কর্মবিরতি’র কারণে পরিষদের সকল অফিসে কর্মকান্ড বন্ধ হয়ে যায়। এসময় পাজেপ’র হস্তান্তরিত ২২টি বিভাগে’র কার্যক্রম মুহুর্তে স্থবির হয়ে পড়লে কর্তৃপক্ষ জরুরী সভা আয়োজন করে। এ ঘটনার পর পাজেপ ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে ।

জানা যায়, বুধবার দুপুর ১২টার দিকে আশুতোষ ত্রিপুরা নামে এক ঠিকাদার ৪-৫জন সাঙ্গ-পাঙ্গ নিয়ে জেলা পরিষদে আসে। পরে একটি কাজের বিল সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে সংস্থাপন বিভাগের অফিস সহকারি(জুনিয়র অডিটর) মোঃ মফিজুর রহমান মোল্লা’র সাথে ঐ ঠিকাদারের বাক-বিতন্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে সাঙ্গপঙ্গসহ ঐ ঠিকাদার অফিস সহকারি মফিজের উপর হামলা চালায়। এসময় অফিস পিয়ন মিন্টু দাশ বাধা দিতে চাইলে তাকেও মারধর করা হয়। এঘটনায় অফিস সহকারি(জুনিয়র অডিটর) মোঃ মফিজ ও পিয়ন মিন্টু কুমার দাশ গুরুত্বর আহত হয়। আহতাবস্থায় কর্মরত থাকা সহকর্মীরা তাদের উদ্ধার করে খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে নিলে মোঃ মফিজকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয় এবং মিন্টু কুমার দাশকে ভর্তি  করা হয়।

ঘটনার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কানন দেবনাথ এর নেতৃত্বে পুলিশ পার্বত্য জেলা পরিষদ কার্যালয়ে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে ।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, খাগড়াছড়ি সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ সরোয়ার হোসেন জানান, হামলায় আহত সরকারী কর্মচারী’র সুনির্দিষ্ট অভিযোগ করা হলে পরবর্তীতে কর্তৃপক্ষের অনুমতিক্রমে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চাইথোঅং মারমা জানান, উভয় পক্ষ নিজেদের ভুল বুঝাঝি’র কারনে একটু হতটক হলেও পরে একপর্যায় সমাধান করা হয়েছে । ঘটনার দিন বিকাল ৪টায় জরুরী সভা ডেকে ঠিকাদার ও কর্মচারীদের মীমাংসা করা হয়।

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহি কর্মকর্তা মো: সালাউদ্দীন আহম্মেদ জানান, পার্বত্য জেলা পরিষদের অধীন মহালছড়ি সরকারি আবাসিক হোস্টেলের খাবার সরবরাহ কাজের অনিয়ম বিষয়ে ঠিকাদারকে শোকজ করাকে কেন্দ্র করে ঠিকাদার আশুতোষ ত্রিপুরা ও স্বপন সংঘবদ্ধভাবে অফিস কক্ষে ঢুকে হামলা চালায় কর্মচারিকে চুরিকাঘাত করে ফাইল তছনছ করে দেয় । এ ব্যাপারে থানায় মামলা’র প্রস্তুতি চলছে ।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.